Wednesday, June 19, 2024
বাড়িরাজ্যঋণগ্রস্ত ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যু

ঋণগ্রস্ত ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যু

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১ মে :  চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে রহস্যজনক মৃত্যু এক ব্যক্তির। নিছক আত্মহত্যা, নাকি খুন হয়েছেন, তা লাখ টাকার প্রশ্ন। মুঙ্গিয়াকামী স্টেশন থেকে ৫ কিলোমিটার দূরে এই ঘটনা সংগঠিত হয়েছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, রবিবার বিকেলে শিলচর থেকে আগরতলা গামী ট্রেন যখন মুঙ্গিয়াকামী স্টেশন থেকে আনুমানিক ৫ কিলোমিটার দূরে ছিল ঠিক সেই সময় ট্রেনে থাকা জনৈক টি.এম সিনহা নামে এক ব্যক্তি চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাপ দেয়।

ঘটনা প্রত্যক্ষ করে তার সাথে থাকা অন্যান্যরা তেলিয়ামুড়া রেল স্টেশনে এসে জানান। তেলিয়ামুড়া থানার পুলিশ ও জি.আর.পি থানায় বিষয়টি অবগত করলে জি.আর.পি পুলিশ সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তিদেরকে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে। রবিবার গভীর রাতেই মৃতদেহ পাঠিয়ে দেওয়া হয় তেলিয়ামুড়া মহকুমা হাসপাতালে। জানা গেছে মৃত ব্যক্তি দীর্ঘদিন ধরে আর্থিক কেলেঙ্কারির সাথে জড়িত ছিলেন। আরো জানা গেছে তিনি বেশ কিছুদিন ধরে রাজধানী আগরতলা সহ রাজ্যের বেশ কিছু সাধারণ মানুষের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা তুলেছিলেন। অনেকটা চেইন মার্কেটিং ব্যাবসার মতো করে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করেন । একটা সময়ে টাকা প্রদানকারীরা ক্রমান্বয়ে টাকা ফেরত দেওয়ার দাবি এবং চাপ তৈরি করে আসছিল। এরই মধ্যে সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তি বেশ কিছুদিন গা ঢাকা দিয়ে থাকার পর রবিবার আগরতলা থেকে কয়েকজন লোক  জানতে পারেন সংশ্লিষ্ট ব্যাক্তি কৈলাসহরে অবস্থান করছেন। এরপর নিজেদের টাকা আনার তাগিদে সেই টাকা প্রদানকারী ব্যক্তিরা প্রতারক টি.এম সিনহাকে  কৈলাসহর থেকে কুমারঘাট হয়ে আগরতলায় নিয়ে আসছিলেন। সে সময় ঘটে এই ঘটনা। সোমবার মৃতদেহ ময়না তদন্তের পর পরিবারের লোকজনের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তবে এই ঘটনার পেছনে খুন নাকি আত্মহত্যা তা সঠিক তদন্তে বের হয়ে আসবে বলে ধারনা পুলিশের। তবে এদিকে একটি প্রশ্ন মাথা চারা দিয়েছে। যারা এই ঋণগ্রস্ত ব্যক্তিকে কৈলা শহর থেকে ধরে আগরতলা নিয়ে আসছিলেন, তারা কেন পুলিশের সহযোগিতা নেয় নি। সংবাদমাধ্যমের কর্মী প্রশ্নের উত্তরে সাইনিক দেবের সঙ্গে থাকা এক যুবক জানায় তারা পুলিশকে জানিয়ে কৈলাশহর যায়। তাহলে এত প্রশ্ন কিভাবে পুলিশ আইন তাদের হাতে তুলে দিয়েছে। সেই ব্যক্তিকে যদি পুলিশের হাতে হস্তক্ষেপ করার ইচ্ছে থাকে তাহলে পুলিশ দিয়ে তাকে আটক করা হতো। সুতরাং এ ঘটনার পেছনে নানা রহস্যের দানা বাধতে শুরু করেছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য