Saturday, April 13, 2024
বাড়িরাজ্য২৫৯ জন প্রার্থী আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে ৬০ টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন

২৫৯ জন প্রার্থী আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে ৬০ টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২ ফেব্রুয়ারি : আসন্ন ত্রয়োদশ বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে গত ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত ৩১০ টি মনোনয়ন পত্র জমা পড়েছিল। ৩১ জানুয়ারি ১৯ টি মনোনয়ন পত্র স্কুটিনির সময় বিভিন্ন ত্রুটির কারণে বাতিল হয়ে যায়। ২৯১ টি মনোনয়ন পত্রের মধ্যে ২ ফেব্রুয়ারি দুপুর তিনটা পর্যন্ত ৩২ টি মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নেয় মনোনীত প্রার্থীরা। বর্তমানে ২৫৯ জন প্রার্থী আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে ৬০ টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

বৃহস্পতিবার পশ্চিম জেলাশাসক কনফারেন্স হলে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এই বিষয়ে জানান রাজ্য নির্বাচন কমিশনের মুখ্য আধিকারিক কিরণ গিত্যে। তিনি জানান, বিগত ২০১৮ বিধানসভা নির্বাচনে ২৯৭ জন মনোনীত প্রার্থী ছিলেন। ২০১৮ বিধানসভা নির্বাচন থেকে ৩৮ জন প্রার্থী এবার কম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছেন। তবে এ বছর সবচেয়ে বেশি প্রার্থী রয়েছে বিজেপির। বিজেপি’র মোট ৫৫ জন প্রার্থী লড়াই করতে চলেছেন। তারপর রয়েছে সিপিআইএমের ৪৩ জন প্রার্থী। তৃতীয়ত তিপ্রা মথার প্রার্থী রয়েছেন ৪২ জন। জাতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে প্রার্থী ২৮ জন, সি পি আই প্রার্থী ১ জন, কংগ্রেস প্রার্থী ১৩ জন, আই পি এফ টি প্রার্থী ৬ জন, সি পি আই (এম এল) -র প্রার্থী ১ জন, ফরওয়ার্ড ব্লকের প্রার্থী ১ জন, ত্রিপুরা পিপলস পার্টি প্রার্থী ২ জন, টি এস পি প্রার্থী ১ জন, আর এস পি প্রার্থী ১ জন, আদার আনরিকোনাজ পার্টি ১ জন, ইন্ডিপেন্ডেন্ট ৫৮ জন প্রার্থী রয়েছেন।

তিনি আরো জানান, আগামী সপ্তাহ থেকে পোস্টাল ব্যালটের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে। যারা জরুরী পরিষেবার সাথে যুক্ত অর্থাৎ পুলিশ সহ বিভিন্ন জরুরি পেশায় যেসব কর্মীরা জড়িত রয়েছে তাদের আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে রাজ্যের ২৩ টি মহকুমা পোস্টাল ব্যালট শুরু হবে। অর্থাৎ সেদিন থেকে তাদের পোস্টাল ব্যালটে ভোট প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে। পাশাপাশি ৮০ উর্ধ্ব যারা রয়েছেন তাদের জন্য ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট নেওয়ার প্রক্রিয়া ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে। বর্তমানে নিরাপত্তার জন্য পুলিশ, টি এস আর সহ আধা সামরিক বাহিনী রাজ্যে রয়েছে। রাজ্যে আন্তর্জাতিক সীমান্ত কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা রয়েছে। মিজোরাম এবং আসাম সীমান্তের প্রবেশ সিল করে দেওয়া হবে বলে জানান রাজ্য মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য