Tuesday, February 7, 2023
বাড়িরাজ্যবিদ্যুৎ পরিষেবা উন্নত করতে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের সাথে চুক্তি রাজ্য সরকারের

বিদ্যুৎ পরিষেবা উন্নত করতে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের সাথে চুক্তি রাজ্য সরকারের

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৩১ ডিসেম্বর : ২৪ ঘন্টা নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করার জন্য রাজ্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। গত ৩০ ডিসেম্বর এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে রাজ্য সরকার। মোট ২২৭৫ কোটি টাকার এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। বিদ্যুৎ উৎপাদন , বিদ্যুৎ ব্যবস্থার সম্প্রসারণ এবং আধুনিকরণের জন্য এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এটা রাজ্যের জন্য একটা ঐতিহাসিক মুহূর্ত। শনিবার মহাকরণে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই বিষয়ে অবগত করেন উপমুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দেববর্মা। এতবড় প্রকল্প কোন সেক্টরে আগে নেওয়া হয়নি। প্রকল্পের ১৮২০ কোটি টাকা দেবে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক। রাজ্য সরকার ব্যয় করবে ৪৫৫ কোটি টাকা। এই প্রকল্পের বাস্তবায়নের ফলে রাজ্যে বিদ্যুৎ  ব্যবস্থা আরও উন্নত হবে।

 রাজ্যের বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ও পরিকাঠামো অনেক পুরনো। এই ব্যবস্থার আধুনিকরণ প্রয়োজন। বিদ্যুৎ উদ্বৃত্ত রাজ্যে, বিদ্যুৎ নিয়ে ব্যবসা করতে হবে। এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট থেকে গৃহীত টাকার বেশিরভাগটাই প্রদান করবে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রককে এর জন্য ধন্যবাদ জানান উপমুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দেববর্মা। এই প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে ৬ থেকে ৭ লক্ষ গ্রাহকের সুবিধা হবে। চাকরি পাবে ছয় থেকে সাড়ে ছয় হাজার মানুষ। রুখিয়ার ওপেন সাইকেলকে কম্বাইন্ড সাইকেলে পরিণত করা হবে। পাঁচ বছর বিদ্যুৎ মাসুল বৃদ্ধি না করে উন্নতির পথে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বিদ্যুৎ ব্যবস্থাকে। গুন্ডাছড়ার ১৪ বছরের কাজ শেষ করা হয়েছে। এই কাজ করতে কিছুটা সময় লেগেছে। বিদ্যুৎ পরিষেবার জন্য সবচাইতে বেশি কথা শুনতে হয়। তারপরও বিদ্যুৎ ব্যবস্থাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেয় সরকার। গ্রাহক পরিষেবার উন্নতির জন্যই এই ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। আধুনিকরণ করার জন্য অর্থের প্রয়োজন হয়। কেবল মুখে বললেই চলে না। এই কাজ সরকার এবং দপ্তর করে দেখিয়েছে। ডম্বুর জলাশয়ে ভাসমান বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যবস্থা করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে জানান উপ মুখ্যমন্ত্রী যীষ্ণু দেববর্মা। আগামী তিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে ৩০০০ কোটি টাকা খরচ করবে দপ্তর। সাংবাদিক সম্মেলনে এছাড়াও ছিলেন বিদ্যুৎ দপ্তরের সচিব ব্রিজেস পান্ডে, টি এস আই সি এল এর এমডি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য