Monday, December 5, 2022
বাড়িরাজ্যআই জি এম হাসপাতালে স্থাপন হবে ডেন্টাল কলেজ, দ্রুত প্রকাশ হবে জে...

আই জি এম হাসপাতালে স্থাপন হবে ডেন্টাল কলেজ, দ্রুত প্রকাশ হবে জে আর বি টি -র ফলাফল, ৩২৯ টি শূন্য পদ পূরণের সিদ্ধান্ত মন্ত্রিসভায়

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৭ নভেম্বর : ত্রিপুরা রাজ্যে আগে ডেন্টাল কলেজ ছিল না। রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে আইজিএম হাসপাতালের জি প্লাস সেভেন ভবনে ডেন্টাল কলেজ স্থাপন করা হবে। হাসপাতালে এই ভবনের প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় তলা পরিবর্তে বাকি অংশটাতে এই কলেজ স্থাপন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

 ইতিমধ্যে ডেন্টাল কলেজ কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া পক্ষ থেকে একটি প্রতিনিধি দল এসে পরিদর্শন করে গেছে। আগামী ডিসেম্বর মাসে প্রতিনিধি দলটি পুনরায় রাজ্যে এসে আইজিএম হাসপাতালের এই ভবনটি পরিদর্শন করবে। তারপর কলেজের যন্ত্রপাতি ক্রয় করা হবে। তবে কবে নাগাদ কলেজটি চালু হবে তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। আগামী শিক্ষাবর্ষে যাতে কলেজটি শুরু করা যায় সে দিকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার মন্ত্রিসভায় বৈঠকে সিদ্ধান্ত হওয়ার পর এ বিষয়ে মহাকরণের সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী। আরো জানান কলেজে আসন সংখ্যা কত হবে সেটা এখনো স্থির হয়নি। আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে আসন সংখ্যা স্থির হবে। রাজ্যের ছাত্র-ছাত্রীদের এখন আর ডেন্টাল কলেজের জন্য বহির্রাজ্যে যেতে হবে না বলে আশা ব্যক্ত করি তিনি।

এদিনের মন্ত্রিসভার বৈঠকে আরো শূন্যপদ পূরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সরকার চাকরির ক্ষেত্রে স্বচ্ছতার ছাপ বজায় রাখছে। ৩২৯ টি শূন্য পদ পূরণ করার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে আগরতলা পুর নিগমের জন্য ১৭ জন ওয়ার্ড সেক্রেটারির শূন্য পদ। ত্রিপুরা বিধানসভা জন্য সরাসরি টাইপিস্ট, জুনিয়র রিপোর্টার, ড্রাইভার, পিয়ন, অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার সহ বেশ কয়েকটি পদে ৩৪ জনকে নিয়োগ করা হবে। খাদ্য ও জন সংভরণ দপ্তরে ১৫ জন ফুড ইন্সপেক্টর নিয়োগ করা হবে। টি পি এস সি -র মাধ্যমে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। কারা দপ্তরে ২৬৩ জন ওয়াডার নিয়োগ করা হবে। আই টি দপ্তরে দশজনের শূন্য পদ তৈরি করা হয়েছে। সহসাই এই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। এদিন মন্ত্রীসভার বৈঠকে আরও সিদ্ধান্ত হয় খুব সহসাই জে আর বি টি’র বোর্ডে ফলাফল প্রকাশ করা হবে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই বোর্ড লিখিত পরিক্ষার ফলাফল প্রকাশ করবে।

রাজ্যে হোম গার্ড রয়েছে ৫৭৬ জন। তাদের বছরে পোশাকের জন্য ৩৮৯৫ টাকা দেওয়া হবে। এই অনুদান এ বছর ডিসেম্বর মাসে দেওয়া হবে। আগামী বছর থেকে এপ্রিল মাসের দিকে এই অনুদান প্রদান করা হবে। আরো সিদ্ধান্ত হয়েছে কলেজগুলিতে ব্লাইন্ড ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য প্রতিমাসে পাঁচ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদান দেওয়া হবে। রাজ্যের প্রত্যেকটি কলেজে ব্লাইন্ড ছাত্রছাত্রীরা এই সুবিধা পাবে। আরো সিদ্ধান্ত হয় বহু স্কুল রয়েছে যেগুলি সরকার অনুমোদিত হলে সে স্কুলগুলিতে বদলি নেই। সেসব স্কুলে বদলি শুরু করা হবে। অন্যান্য স্কুল গুলির মত এই স্কুল গুলির মধ্যেও নিয়োগ প্রক্রিয়া সহ সমস্ত কার্যকলাপ শুরু হবে জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী।

বিরোধী রাজনৈতিক দলকে এদিন তিনি কটাক্ষ করে বলেন রাজ্যে যখন শূন্য পদ পূরণ হচ্ছে তখন তারা বিভিন্ন ভাবে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। আসলে তারা চোখ খুলে ঘুমাচ্ছে। বর্তমান সরকার স্বচ্ছতার ক্ষেত্রে ছাপ রাখছে। পরিবর্তন সরকার নিয়োগ প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা না রাখাতে সৃষ্টি হয়েছে ১০,৩২৩ জন বলে জানান মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী। আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন আর ডি দপ্তরের সচিব সন্দীপ রাঠোর।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য