Saturday, December 3, 2022
বাড়িরাজ্যএডিসি -কে বিজেপি পঙ্গু করে দেওয়ার চেষ্টা করছে, অভিযোগ মথার

এডিসি -কে বিজেপি পঙ্গু করে দেওয়ার চেষ্টা করছে, অভিযোগ মথার

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৬ অক্টোবর : ত্রিপুরার ৫২৭ টি আসনে ভিলেজ কমিটির নির্বাচনের মেয়াদ ২০২১ সালের ৭ই মার্চ শেষ হয়ে গেছে। সরকার কোভিডের অজুহাত দেখিয়ে নির্দিষ্ট সময়ে নির্বাচন সংঘটিত করেনি। কিন্তু কত দেড় বছরে ত্রিপুরায় পুর নগর সংস্থার নির্বাচন সংঘটিত হয়েছে। তাই তিপ্রা মাথার পক্ষ থেকে দুজন ত্রিপুরা হাইকোর্টে মামলা দায়ের করার পর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আগামী নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে যাতে ভিলেজ কমিটির নির্বাচন সংগঠিত করা হয়।

 কিন্তু দেখা গেল ভিলেজ কমিটির নির্বাচনের জন্য ভোটার তালিকা প্রকাশের পর তার মধ্যে বহু রিয়াং শরণার্থীর নাম নেই। এই বিষয়ে রাজ্যের একটি এনজিও সংস্থা আদালতে আর্জি জানিয়েছে প্রায় ২১ হাজার ৭০০ জন ব্রু রিয়াং -এর নাম ভোটার তালিকায় নথিভুক্ত করে যাতে নির্বাচন ভিলেজ কমিটির নির্বাচন সংঘটিত করা হয়। কিন্তু শনিবার রাজ্য নির্বাচন কমিশন থেকে এক বিবৃতির মাধ্যমে বলা হয়েছে চলতি বছর ৫ জানুয়ারি ভারতের নির্বাচন কমিশন এবং ত্রিপুরার নির্বাচন কমিশন মিলে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করেছে।

আবার চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ হবে ২০২৩ সালের ৫ জানুয়ারির পর। সুতরাং এই ব্রু রিয়াং -দের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা অসম্ভব বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে। রাজ্য সরকার ও নির্বাচন কমিশনের এ ধরনের ভূমিকা, তীব্র নিন্দা জানানো হচ্ছে। এর প্রতিবাদে আগামী ১৯ অক্টোবর প্রতিটি রুরাল ডেভেলাপমেন্ট ব্লক প্রাঙ্গণ তিপ্রা মথা সমস্ত শক্তি দিয়ে আন্দোলন গড়ে তুলে নির্বাচন কমিশনের এ ধরনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানানো হবে। রবিবার চন্দ্র মহলে সাংবাদিক সম্মেলন করে এ কথা জানান তিপ্রা মথার সভাপতি বিজয় রাঙ্খল এবং দলের নেতৃত্ব অনিমেষ দেববর্মা। অনিমেষ দেববর্মা সাংবাদিক সম্মেলনে শাসক দল বিজেপি’কে চ্যালেঞ্জ করে বলেন এই মুহূর্তে যদি ভিলেজ কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়, তাহলে যারা সর্ববৃহৎ দল বলে নিজেদের দাবি করে তাদের সাথে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তিপ্রা মথা ৫২৭ টি আসনের মধ্যে চার শতাধিকের অধিক আসনে জয়ী হবে। বিজেপি ভিলেজ কমিটির নির্বাচন এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। এর পেছনে মূলত কারণ তিপ্রা মথা তিপ্রাসাদের কন্ঠ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। আর এই কণ্ঠরোধ করতে ভিলেজ কমিটির নির্বাচন বরাবরই এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা বিজেপি’র। তাই শাসক দলের উদ্দেশ্যে বলা হচ্ছে ভিলেজ কমিটির নির্বাচন এড়িয়ে তিপ্রাসাদের কণ্ঠ প্রতিরোধ করা যাবে না। তিপ্রাসাদের অস্তিত্ব রক্ষা ও সাংবিধানিক অধিকারের জন্য তিপ্রা মথা লড়াই করে যাবে বলে জানান। শ্রী দেববর্মা আরো বলেন রাজ্য সরকার শুধু ভিলেজ কমিটির নির্বাচন নিয়ে চক্রান্ত করেনি, তারা এডিসিকে পঙ্গু করে দেওয়ার চেষ্টা করছে। জনজাতি অংশের মানুষের উন্নয়নের জন্য এডিসি এলাকার বিভিন্ন প্রজেক্ট রুখে দিতে চেষ্টা করছে। এমনকি আর্থিকভাবে পঙ্গু করে দিতে জনজাতি কল্যাণ দপ্তর দিয়ে এডিসি পরিচালনার জন্য অভিভাবক করতে চাইছে। এর তীব্র নিন্দা জানানো হচ্ছে বলে জানান শ্রী দেববর্মা। আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন এ ডি সি -র চেয়ারম্যান জগদীশ দেববর্মা সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য