Monday, December 5, 2022
বাড়িরাজ্যবিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত হলো ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ২০৩ তম জন্মদিবস

বিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত হলো ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ২০৩ তম জন্মদিবস

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৬ সেপ্টেম্বর : ২৬ সেপ্টেম্বর ভারতের নবজাগরণের পথিকৃৎ এবং আধুনিক শিক্ষার রূপকার ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ২০৩ তম জন্মদিবস। ১৮২০ সালে এদিন বাঙালি শিক্ষাবিদ এবং সমাজ সংস্কারক ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের জন্ম হয়েছিল। আজ তাঁর ২০৩ তম জন্মবার্ষিকী। এদিন রাজধানীর ড্রপ গেইট এলাকায় ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা জানান ডেপুটি মেয়র মনিকা দাস দত্ত, পশ্চিম জেলা সভাধিপতি অন্তরা দেব সরকার সহ অন্যান্যরা। ডেপুটি মেয়র বক্তব্য রেখে বলেন, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর শুধু বিদ্যার সাগর ছিলেন না, তিনি জ্ঞান, দয়া, প্রগতিশীলতা, মানবতার এবং করুণার সাগর ছিলেন। তাই আজকের দিনটা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে জানান তিনি।

অল ইন্ডিয়া সেভ এডুকেশন কমিটি সারা দেশব্যাপী এই দিনটি শিক্ষা বাঁচাও দিবস হিসেবে পালন করেছে সোমবার। এ উপলক্ষে কমিটির ত্রিপুরা রাজ্য শাখার পক্ষ থেকে আগরতলা স্টেট মিউজিয়ামের সামনে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এদিন বিদ্যাসাগরের প্রতিকৃতিতে মাল্য দান করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কমিটি সদস্যরা। পরে বিদ্যাসাগরের শিক্ষা চিন্তা ও বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থার সম্পর্কে আলোচনা করেন কমিটি সম্পাদক অসিত দাস এবং ননীগোপাল দেবনাথ।

এদিকে বটতলা এলাকায় অল ইন্ডিয়া ডি এস ও এবং এ আই এম এস এস রাজ্য কমিটির পক্ষ থেকেও ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ২০৩ তম জন্ম জয়ন্তী পালন করা হয় এদিন। উপস্থিত অল ইন্ডিয়া ডিএসও রাজ্য কমিটির সভাপতি মৃদুল কান্তি সরকার ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের সম্পর্কে বক্তব্য তুলে ধরেন। তিনি বলেন আগামী দিনে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের দেখানো দিশায় দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আরো বলেন বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার জাতীয় শিক্ষানীতি ২০২০ প্রণয়ন করেছে। তাই আজকের দিনে দাঁড়িয়ে দাবি করা হচ্ছে এই সর্বনাশা জাতীয় শিক্ষানীতি ২০২০ অবিলম্বে বাতিল করতে হবে। নাহলে আগামী দিনে আন্দোলনে নামবে বলে জানান তিনি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য