Tuesday, October 4, 2022
বাড়িরাজ্যমানুষ খুব বেশি কিছু চায় না, তাদের জন্য ভাবনা চিন্তা করছি কিনা...

মানুষ খুব বেশি কিছু চায় না, তাদের জন্য ভাবনা চিন্তা করছি কিনা তাই দেখে মানুষ : মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১২ সেপ্টেম্বর :  সমাজ কল্যাণ ও সমাজ শিক্ষা দপ্তরের অধীন নরসিংগড়ে নব নির্মিত ৫০ শয্যা বিশিষ্ট শান্তিনীড় ও প্রবীন নাগরিকদের পরামর্শ এবং সহায়তা করার জন্য ১৪৫৬৭ নাম্বারের হেল্প লাইন ও জুবেনাইল জাস্টিস ফাণ্ডের একটি ওয়েবসাইটের সূচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ মানিক সাহা। সোমবার তিনটি পরিষেবার সূচনা করার পর নব নির্মিত ৫০ শয্যা বিশিষ্ট শান্তিনীর আবাসনটি ঘুরে দেখেন মুখ্যমন্ত্রী। 

 পরে তিনি বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন মানুষের জন্মের পর দেখা যায় শারীরিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক সমস্যা হয়। এই ক্ষেত্রে কেউ অচ্যুত নয়। টি সি এ- র সভাপতি থাকাকালীন সময়ে ব্লাইন্ড এসোসিয়েশন থেকে সহায়তার জন্য আসত। তাদের সাধ্যমত আর্থিক সহায়তা করতেন। দিব্যাং হওয়ার পরেও নিজেদের সমাজে প্রতিষ্ঠিত করতে তারা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। মাত্রাতিরিক্ত চাপের কারনে অনেকেই মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। কেবল ওষুধ দিয়ে এদের সুস্থ করা সম্ভব নয়। তাদের জন্য একটা উপযুক্ত পরিবেশ থাকতে হবে। মানসিক হাসপাতাল গুলিতে চিকিৎসাধীন হওয়ার পর যারা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরতে পারেন না তাদের জন্য এখানে সুব্যবস্থা করা হয়েছে।

এতে ২৫ টি আসন মহিলা এবং ২৫ টি পুরুষদের জন্য রাখা হয়েছে। তাদের আগামী দিনে আরও ভালো হওয়ার সুযোগ থাকবে বলে আশা ব্যক্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু কিছু পরিবার তাদের ফিরিয়ে নিতে চায় না। এটা কাম্য নয়। সামাজিক অবক্ষয় বলে জানান তিনি। সরকার করবে, কিন্তু সামাজিক ভাবে এন জি ও- দের কাজ করতে হবে বলে জানান তিনি। শান্তি নিড়ের নামের যথার্থতা বজায় থাকে তার আহ্বান জানান তিনি। সরকারের মানবিক মুখ সবাই প্রত্যক্ষ করতে পারছে। মানুষ খুব বেশী কিছু চায় না। তাদের জন্য ভাবনা চিন্তা করছি কিনা তাই দেখে মানুষ। তবে মানুষকে সচেতন করতে ধারাবাহিক কর্মসূচী জারি রাখতে হবে। আগে ফ্ল্যাট স্ংস্কৃতি ত্রিপুরায় ছিল না। এখন তা প্রকট ভাবে হচ্ছে। কিন্তু মানসিকতার ক্ষেত্রে এই পরিবর্তন আনলে চলবে না। মানুষ মানুষের জন্য। মানুষের সেবার মাধ্যমেই ঈশ্বরের সেবা করা যায় এটা মাথায় রাখতে হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। এদিনের অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক পরীক্ষায় সাফল্য অর্জনকারী অমরপুর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের মেধাবী দিব্যাং ছাত্র ঋসভ ভৌমিকের হাতে ২৪ হাজার টাকার চেক ও মানপত্র তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। অনুরূপ ভাবে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় সাফল্য অর্জনকারী নড়সিংগড় স্কুলের  মেধাবী দিব্যাং ছাত্র চিন্ময় আচার্যের হাতে ৫৪ হাজার টাকার চেক ও মানপত্র তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ মানিক সাহা। অনুষ্ঠানে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী শান্তনা চাকমা, বিধায়ক কৃষ্ণধন দাস, দপ্তরের সচিব অভিষেক সিং, অধিকর্তা ডা সিদ্ধার্থ শিব জশোয়াল সহ অন্যান্যরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য