Saturday, June 15, 2024
বাড়িখেলাভারতের কোচ হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন গম্ভীর

ভারতের কোচ হওয়া নিয়ে মুখ খুললেন গম্ভীর

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ৩ জুন: আইপিএলের সময় থেকেই আলোচনাটা চলছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দিয়ে ভারতের প্রধান কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর তাঁর উত্তরসূরি হিসেবে আসছে সাবেক ওপেনার গৌতম গম্ভীরের নাম। এবার এ নিয়ে মুখ খুললেন গম্ভীর নিজেও। তাঁর মন্তব্যে অবশ্য সম্ভাবনাটা জোরালোই হলো।দুবাইয়ে শিশুদের এক অনুষ্ঠানে গতকাল ভারতকে কোচিং করানো প্রসঙ্গে গম্ভীর বলেছেন, ‘দেখো, ভারতীয় দলকে কোচিং করাতে পারলে আমার ভালো লাগবে। এর চেয়ে বড় সম্মান হয় না। জাতীয় দলকে কোচিং করানোর চেয়ে বড় সম্মান আর হয় না। ১৪০ কোটি ভারতীয়র প্রতিনিধিত্ব করছ, বিশ্বজুড়ে আরও (ভারতীয়) আছে। ভারতের প্রতিনিধিত্ব করার চেয়ে বড় আর কী হতে পারে?’কোচিংয়ে গম্ভীরের এমনিতে সরাসরি কোনো অভিজ্ঞতা নেই। ঘরোয়া বা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে কোনো দলকেই কোচিং করাননি সাবেক বাঁহাতি এ ব্যাটসম্যান। তবে আইপিএলের দল লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের মেন্টর হিসেবে দুই মৌসুম দায়িত্ব পালন করার পর সর্বশেষ কলকাতা নাইট রাইডার্সে একই ভূমিকায় ছিলেন। লক্ষ্ণৌ সে দুই মৌসুমেই আইপিএলের প্লে–অফে উঠেছিল।

আর এবার কলকাতা আইপিএলের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। সফল টুর্নামেন্টের পর দলটিতে গম্ভীরের ভূমিকার কথা এসেছে ঘুরেফিরেই। কলকাতাকে সাত মৌসুম নেতৃত্ব দেওয়া গম্ভীর অধিনায়ক হিসেবে শিরোপা জিতেছিলেন দুবার—২০১২ ও ২০১৪ সালে। এর পর থেকে শিরোপা–খরায় থাকা দলটি আবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তিনি মেন্টর হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার প্রথম মৌসুমেই।আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে গম্ভীর ভারতের হয়ে খেলার সময় জিতেছেন দুটি বিশ্বকাপ। ২০০৭ সালে প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর ২০১১ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপজয়ী ভারত দলের সদস্য ছিলেন তিনি। দুবাইয়ের ওই অনুষ্ঠানে এক শিশুর প্রশ্নের জবাবে বিশ্বকাপ জয় প্রসঙ্গে গম্ভীর বলেন, ‘আমি কীভাবে ভারতকে বিশ্বকাপ জেতাতে সহায়তা করব? আমার মনে হয় না, আমি ভারতকে বিশ্বকাপ জেতাতে সহায়তা করব। ১৪০ কোটি ভারতীয় এটা করবে। সবাই যদি আমাদের জন্য প্রার্থনা শুরু করে এবং আমরা খেলা শুরু করি; তাদের প্রতিনিধিত্ব করা শুরু করি, তাহলে ভারত বিশ্বকাপ জিতবে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ভয়ডরহীন থাকা। আর হ্যাঁ, ভারতের কোচিং করাতে পারলে আমার ভালো লাগবে।’

ভারতের কোচ হলে অবশ্য কলকাতার দায়িত্ব ছাড়তে হবে গম্ভীরকে। বিসিসিআইয়ের স্বার্থের সংঘাত নীতি অনুযায়ী, ভারত দলের কোচ আইপিএলের কোনো দলের সঙ্গে থাকতে পারবেন না। তবে গম্ভীর সম্প্রতি স্পোর্টসক্রীড়া নামের একটি ওয়েবসাইটকে বলেছেন, তিনি আইপিএলের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল ফ্র্যাঞ্চাইজি বানাতে কলকাতার হয়ে কাজ করে যেতে চান।দ্রাবিড় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর আর মেয়াদ নবায়ন করবেন না, সেটি নিশ্চিত হয়েছে আগেই। গত মাসে প্রধান কোচ চেয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজ্ঞপ্তিও দিয়েছে ভারতের ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। গম্ভীরের সঙ্গে রিকি পন্টিং, জাস্টিন ল্যাঙ্গারসহ কয়েকজন সম্ভাব্য বিদেশি কোচের নামও এসেছিল। তবে বিসিসিআইয়ের সেক্রেটারি জয় শাহ বলেছিলেন, জাতীয় দলের জন্য কোচ হিসেবে একজন ভারতীয়কেই খুঁজছেন তাঁরা। পরবর্তী কোচকে ভারতের ক্রিকেট–কাঠামো সম্বন্ধে গভীর জানাশোনা থাকতে হবে বলেও উল্লেখ করেন বিসিসিই সেক্রেটারি।জয়ের সে বক্তব্যের পর গম্ভীরের কোচ হিসেবে আসার সম্ভাবনা জোরালো হয় আরও। অবশ্য এ পদের জন্য তিনি আবেদন করেছেন কি না, কোনো পক্ষ থেকেই সেটি নিশ্চিত করা হয়নি। আইপিএল ফাইনালের পরদিন, মানে গত ২৭ মে আবেদন করার শেষ সময় ছিল।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য