Saturday, June 15, 2024
বাড়িখেলা‘১৯’ রাঙিয়ে অবসরে বোনুচ্চি

‘১৯’ রাঙিয়ে অবসরে বোনুচ্চি

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ৩০ মে; ২০১৮ সালে কথাটা বলেছিলেন জোসে মরিনিও, ‘বোনুচ্চি এবং কিয়েলিনি…কীভাবে সেন্টারব্যাক হওয়া যায়, সে বিষয়ে ওরা হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে ক্লাস নিতে পারবে।’ ইতালি জাতীয় দল এবং জুভেন্টাসের রক্ষণভাগে এই দুই ‘অমর সঙ্গী’র মধ্যে জর্জো কিয়েলিনি বুট তুলে রেখেছেন গত বছরের ডিসেম্বরে। আর লিওনার্দো বোনুচ্চি অবসর ঘোষণা করলেন কাল রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। ‘এক্স’–এ একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন বোনুচ্চি। তাঁর বিখ্যাত জার্সি নম্বর ‘১৯’–কে প্রাধান্য নিয়ে ভিডিও বার্তাটি শুরু হয়। এরপর অ্যালবামের পাতা ওল্টানোর ভঙ্গিতে বোনুচ্চির শৈশব থেকে কিংবদন্তি হয়ে ওঠা পর্যন্ত দেখানো হয়েছে। জার্সি নম্বরের মতো তাঁর ক্যারিয়ারও ১৯ বছরে উন্নীত করে থেমে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন বোনুচ্চি।অবসর নিশ্চিত করে ভিডিও বার্তায় তিনি বলেছেন, ‘যে গল্পটা বলতে যাচ্ছি সেটির স্বপ্ন সেই ছেলেবেলাতেই বুনেছিলাম। নিজেকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম বড় কিছু অর্জনের, বড় কিছু উদ্‌যাপনের। চেয়েছিলাম কঠিন সময়গুলো সাহসের সঙ্গে পাড় করতে। একজন পিতা, একজন সতীর্থ, একজন স্বামী, একজন খেলোয়াড়, ইতিহাস সবকিছু ছাপিয়ে আজ আমি এই আমি হয়েছি।’

৩৭ বছর বয়সী বোনুচ্চি ইতালির হয়ে ২০২০ ইউরো জিতেছেন। ওয়েম্বলিতে ফাইনালে গোলও করেছেন। ২০১০ সালে ক্যামেরুনের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ইতালি জাতীয় দলে তাঁর অভিষেক। ইতালির হয়ে চতুর্থ সর্বোচ্চ ম্যাচ (১২১) খেলেছেন। সংবাদমাধ্যমে গুঞ্জন, এবার ইউরোয় ইতালির স্কোয়াডে জায়গা পাওয়ার আশা করেছিলেন বোনুচ্চি। কিন্তু কোচ লুসিয়ানো স্পালেত্তি ইতালির প্রাথমিক স্কোয়াডে তাঁকে রাখেননি। এরপরই অবসরের সিদ্ধান্ত নিলেন বোনুচ্চি। ইতালির জার্সিতে ৮টি গোলও আছে এই কিংবদন্তি ডিফেন্ডারের।ইতালিয়ান ক্লাব ভিতেরবেসের হয়ে ২০০৫ সালে পেশাদার ক্যারিয়ার শুরু বোনুচ্চির। জুভেন্টাস, ইন্টার মিলান ও এসি মিলান—ইতালির শীর্ষ তিন ক্লাবেই খেলেছেন। তবে জুভেন্টাসে দুই মেয়াদে বোনুচ্চি যা অর্জন করেছেন, সে জন্যই তাঁকে বেশি মনে রাখবেন ‘তুরিনের বুড়ি’দের সমর্থকেরা। ক্লাবটির হয়ে খেলেছেন ৫০২ ম্যাচ। ২০১০ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত জুভেন্টাসে থাকার পর মিলান ঘুরে ২০১৮ সালে বোনুচ্চি ফিরে যান জুভেন্টাসে। আরও পাঁচ বছর সেখানে থাকার পর ২০২৩ সালে জুভেন্টাস ছেড়ে ইউনিয়ন বার্লিনে নাম লেখান। এ বছর তুর্কি ক্লাব ফেনারবাচেতে যোগ দেন।

বোনুচ্চিকে অবসর–পরবর্তী জীবনে শুভকামনা জানিয়ে জুভেন্টাস তাদের ওয়েবসাইটে লিখেছে, ‘আমরা তাঁকে গত বছরের সেপ্টেম্বরে বিদায় জানিয়েছি। কিন্তু যে সুতো আমাদের বেঁধে রেখেছে, তা ছেঁড়া যাবে না। লিও তাঁর জীবনের একটি নতুন অধ্যায় শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর জন্য আমরা তাঁকে শুভকামনা জানাই।’জুভেন্টাসের হয়ে ৮ বার এবং ইন্টারের হয়ে একবার—মোট ৯ বার সিরি ‘আ’ জিতেছেন বোনুচ্চি। এ ছাড়া চারবার কোপা ইতালিয়া এবং পাঁচবার ইতালিয়ান সুপার কাপ জিতেছেন। জুভেন্টাসের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে খেলেছেন দুবার। আশ্চর্যের ব্যাপার হলো, বোনুচ্চির জার্সি নম্বর ১৯, পেশাদার ক্যারিয়ারেও কাটালেন ১৯ বছর এবং ক্লাব ফুটবলে তাঁর শিরোপাসংখ্যাও ১৯!

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য