Thursday, May 30, 2024
বাড়িখেলাব্যালন দ’র জিতবেন টনি ক্রুস? আনচেলত্তি বললেন, ‘হতেই পারে’

ব্যালন দ’র জিতবেন টনি ক্রুস? আনচেলত্তি বললেন, ‘হতেই পারে’

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১৫ মে: ভিনিসিউস জুনিয়র আর জুড বেলিংহ্যাম, আগামী ব্যালন দ’র জয়ের লড়াইয়ে এই দুজনই আপাতত সবচেয়ে এগিয়ে আছেন বলা যায়। তবে মৌসুমজুড়ে টনি ক্রুস যেমন খেলেছেন, এই লড়াইয়ে তাকেও খুব পিছিয়ে রাখছেন না কার্লো আনচেলত্তি। রেয়াল মাদ্রিদ যদি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতে আর জার্মানি যদি জিততে পারে ইউরো, ‘ডাবল’ জয়ের সাফল্যে ক্রুস ব্যালন দ’র জিতে যেতে পারেন বলেই মনে করেন কোচ।একটি ট্রফি এই মৌসুমে জিতেই গেছেন ক্রুস। রেয়াল মাদ্রিদ লা লিগা জয় করেছে চার ম্যাচ বাকি রেখেই। দলের সেই সাফল্যে ক্রুসের অবদান বিশাল। মাঝমাঠের বড় ভরসা হয়ে অসাধারণ খেলেছেন তিনি মৌসুমজুড়েই। চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও রেয়ালের ফাইনালে ওঠার পথে ৩৪ বছর বয়সী মিডফিল্ডার ছিলেন দারুণ ধারাবাহিক।সম্প্রতি তিনি আন্তর্জাতিক ফুটবলে অবসর ভেঙে ফিরে এসেছেন জাতীয় দলে। সব ঠিক থাকলে আগামী মাসেই জার্মানির হয়ে দেশের মাঠে ইউরোতে খেলতে দেখা যাবে তাকে।

রেয়ালের হয়ে গত ১০ বছরে চারটি করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও লা লিগাসহ মোট ২১টি ট্রফি জিতেছেন ক্রুস। জার্মানির হয়ে জিতেছেন ২০১৪ বিশ্বকাপ, ২০১৮ বিশ্বকাপে হয়েছেন তৃতীয়। আগে বায়ার্ন মিউনিখের হয়েও বুন্ডেসলিগা ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের কৃতিত্ব তার আছে। তবে কখনও নিজে ব্যালন দ’র জয়ের কাছাকাছি যেতে পারেননি।এবার সেটি সম্ভব বলেই ধারণা আনচেলত্তির। লা লিগায় মঙ্গলবার আলাভেসের বিপক্ষে রেয়াল মাদ্রিদের ৫-০ গোলের জয়ের পর কোচকে এটা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি শোনালেন আশাবাদ।“(ক্রুস ব্যালন দ’র জিতবে?) হতেই পারে… যে কোনো কিছুই হতে পারে। এই গ্রীষ্মে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতা এখনও বাকি আছে। ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ক্রুস থাকলে জার্মানি চ্যাম্পিয়ন হতেই পারে। যদি সে ইউরো ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতে ‘ডাবল’ অর্জন করে, তাহলে কেন নয়? সেও লড়াইয়ে থাকতে পারে (ব্যালন দ’র জয়ে)।”

শেষ পর্যন্ত ক্রুস লড়াইয়ে কতটা থাকবেন, তা বোঝা যাবে সময় হলেই। আপাতত অনিশ্চয়তা আছে তার রেয়াল ক্যারিয়ার নিয়ে। গত মৌসুমের পর থেকে এক মৌসুম করে চুক্তির পথ বেছে নিয়েছেন তিনি। নিজের শরীর ও মন চাইলে, খেলাটা উপভোগ করলেই কেবল খেলে যাবেন-এমন ভাবনা তার। আগামী মৌসুমে তিনি খেলে যাবেন কি না, তা নিশ্চিত নয় এখনও।সেটি নিয়ে কোনো দুর্ভাবনা নেই আনচেলত্তির। তাড়াহুড়োর কোনো প্রয়োজন তিনি দেখছেন না। ১ জুন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালের আগে অন্য কিছু নিয়ে ভাবতে নারাজ কোচ।“সে কী করতে চায়, এই মুহূর্তে তা নিয়ে আমাদের ভাবনা নেই। আমি চিন্তিত নই, ক্লাব চিন্তিত নয়, টনির নিজেরও চিন্তা নেই। ১ জুন পর্যন্ত অন্য কোনো ভাবনাই আমাদের কাছে প্রাধান্য পাচ্ছে না। শুধু চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করা নিয়েই ভাবছি আমরা। এটা শেষ হলে সংশ্লিষ্টরা কথা বলে সমাধান বের করবে।”

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য