Thursday, July 25, 2024
বাড়িখেলাএকে একে ১০০ ক্লাবের জালে গোল মেসির

একে একে ১০০ ক্লাবের জালে গোল মেসির

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,২৬ জুলাই: গোল করেছেন ২টি। বানিয়েছেন ১টি। গোলের জন্য নেওয়া ৪টি শটের মধ্যে শুধু ১টি পোস্টে ছিল না। দুবার ড্রিবল করার সুযোগ পেয়ে দুবারই সফল। গোল হওয়ার মতো পাস দিয়েছেন ৩টি। মোট ৫৬টি পাস খেলেছেন, এর মধ্যে ৪৬টি পাসই ছিল নিখুঁত। প্রতিপক্ষের সঙ্গে তিনবার বল দখলের লড়াইয়েও হারেননি—এই হলেন ৩৬ বছর বয়সী লিওনেল মেসি!আর্জেন্টাইন তারকার এই পরিসংখ্যান আটলান্টা ইউনাইটেডের বিপক্ষে ম্যাচের। যুক্তরাষ্ট্রের লিগস কাপে আজ দলটিকে ৪-০ গোলে হারিয়েছে মেসির দল ইন্টার মায়ামি। বলতে পারেন, যে মেসি বছরের পর বছর ইউরোপের সেরা প্রতিযোগিতাগুলো মাতিয়েছেন, তাঁর কাছে উত্তর আমেরিকার তুলনামুলক কম প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফুটবলে এমন পারফরম্যান্স প্রত্যাশিতই! কিন্তু বয়সও মাথায় রাখতে হবে। গনগনে দিন গড়িয়ে অস্তরাগের সময় হলে সূর্যের তাপও কমে আসে। মেসিকে দেখে অবশ্য কথাটা মিথ্যা মনে হতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবলে এ নিয়ে নিজের দ্বিতীয় ম্যাচেও গোল পেলেন। শুধু-ই কী গোল, মেসি মাঠে নামলে রেকর্ড-বইয়েও তো ওলট-পালট হয়।

আটলান্টার বিপক্ষেও হলো। অফিশিয়াল ম্যাচে এ নিয়ে ১০০টি ক্লাবের বিপক্ষে গোল করলেন মেসি। অর্থাৎ মেসির ১০০তম ‘শিকার’ হলো আটলান্টা। ফুটবলের পরিসংখ্যানভিত্তিক টুইটার অ্যাকাউন্ট ‘অপটা হাভিয়ের’ জানিয়েছে, মোট ২৩টি দেশের ১০০টি আলাদা ক্লাবের বিপক্ষে গোল করলেন আর্জেন্টাইন তারকা। দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল এবং সেখানকার ফুটবলারদের পরিসংখ্যানভিত্তিক টুইটার অ্যাকাউন্ট ‘সুদাঅ্যানালিটিকস’–এর হিসাবে অফিশিয়াল ম্যাচে ১১৫টি আলাদা আলাদা ক্লাবের মুখোমুখি হয়ে ১০০টি ক্লাবের বিপক্ষে গোল পেয়েছেন মেসি। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গোল করেছেন স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়ার জালে-৩৮। অন্তত একটি করে গোল করেছেন ২৭টি ক্লাবের জালে। ২৪টি ক্লাবের বিপক্ষে গোলসংখ্যা উন্নীত করেছেন দুই অঙ্কে।মেসির কীর্তির শেষ নয় এখানেই। আটলান্টার বিপক্ষে দুটি করে গোল করেছেন মেসি ও রবার্ট টেলর। উত্তর আমেরিকান ফুটবলের পরিসংখ্যানভিত্তিক টুইটার অ্যাকাউন্ট ‘অপটা জ্যাক’ জানিয়েছে, মায়ামির ইতিহাসে এই প্রথম এক ম্যাচে দলটির দুজন খেলোয়াড় একাধিক গোল করলেন। মজার বিষয়, আটলান্টার বিপক্ষে মেসি দুটি গোলই করেছেন ডান পায়ে। অফিশিয়াল ম্যাচে মেসির ডান পায়ে জোড়া গোল দেখা গেল অনেক বছর পর। ৮ বছর। সবশেষ লা লিগায় ২০১৫ সালে লেভান্তের বিপক্ষে ম্যাচে ডান পায়ে জোড়া গোল করেছিলেন মেসি। এই তথ্যও জানিয়েছে ‘অপটা হাভিয়ের।’

ইন্টার মায়ামি মেসির তৃতীয় ক্লাব। এর আগে বার্সেলোনা ও পিএসজির হয়ে ৯৮টি আলাদা প্রতিপক্ষের বিপক্ষে ৭০৪ গোল করেছিলেন মেসি। মায়ামির হয়ে ২ ম্যাচে ৩ গোল করার পাশাপাশি গোলও বানিয়েছেন। এর আগে লিগস কাপেই ক্রুজ আজুলের বিপক্ষে মায়ামির হয়ে অভিষেক ম্যাচে ফ্রি কিক থেকে চোখ ধাঁধানো গোল করেছিলেন গত ডিসেম্বরে কাতারে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতানো এই তারকা।২০০৫ সালের ১ মে বার্সেলোনার হয়ে অফিশিয়াল ম্যাচে প্রথম গোল করেছিলেন মেসি। প্রতিপক্ষ ছিল আলবাখেট। মেসি যে ১০০ ক্লাবের বিপক্ষে গোল করেছেন, এর মধ্যে স্প্যানিশ ক্লাবই সর্বাধিক। আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যম ‘ক্লারিন’ জানিয়েছে, ৪১টি স্প্যানিশ ক্লাবের বিপক্ষে গোল করেছেন মেসি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য