Friday, March 1, 2024
বাড়িখেলা‘জাদুকরী’ পারফরম্যান্সে প্রিমিয়ার লিগে ফিরল কোম্পানির বার্নলি

‘জাদুকরী’ পারফরম্যান্সে প্রিমিয়ার লিগে ফিরল কোম্পানির বার্নলি

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,৮ এপ্রিল: প্রিমিয়ার লিগ থেকে ছিটকে যাওয়ার এক মৌসুম পরই আবার ফেরা বেশ চমকপ্রদ তো বটেই। তবে আরও বিস্ময় জাগানিয়া, যেভাবে এটা করে দেখিয়েছে বার্নলি। ইংলিশ চ্যাম্পিয়নশিপে এখনও ৭ ম্যাচ বাকি আছে তাদের। কিন্তু ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় শীর্ষ এই লিগের সেরা দুইয়ে থাকা নিশ্চিত করে ফেলেছে তারা এর মধ্যেই।শুক্রবার মিডলসবরোকে ২-১ গোলে হারিয়ে প্রিমিয়ারে ফেরা নিশ্চিত করে ফেলে কোম্পানির ক্লাব। ৩৯ ম্যাচে বার্নলির পয়েন্ট এখন ৮৭। তিনে থাকা লুটন টাউন এক ম্যাচ বেশি খেলে ৬৮ পয়েন্ট। বাকি ৬ ম্যাচ জিতলেও লুটন ছুঁতে পারবে না বার্নলিকে।২০২১-২২ মৌসুমের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শেষ দিনে অবনমন হয়েছিল বার্নলির। কোম্পানিকে কোচের দায়িত্ব দিয়ে তারা এক মৌসুম পরই আবার উন্নীত হলো শীর্ষ লিগে।ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে চারটি প্রিমিয়ার লিগ শিরোপাজয়ী ডিফেন্ডার কোম্পানি বিশ্বাসই করতে পারছেন না কোচ হিসেবে নতুন ক্লাবে তার এই সাফল্য।

“এখনও সাত ম্যাচ বাকি আছে, অথচ আমরা এখনই উদযাপন করতে পারছি। অবিশ্বাস্য ব্যাপার এটা, আমরা একদমই প্রত্যাশা করিনি এমন কিছু। হ্যাঁ, একদিন এটা অর্জন করার লক্ষ্য আমাদের ছিল বটে। তবে আমাদের ভাবনায় সম্ভাব্য সময়টা ছিল ভিন্ন। মাঝেমধ্যে অনেক কিছু দ্রুত হলেই ভালো।”“এই ধরনের দিন, এমন প্রাপ্তি আসলে ভাবনাকেও ছাড়িয়ে যায়। তবে আমরা এটা অর্জনের পথ খুঁজে নিলেও তা মোটেও সহজ ছিল না। কোনো না কোনো ভাবে এই মৌসুমে আমরা ম্যাচের পর ম্যাচে শেষটায় ভালো অবস্থানে থাকতে পেরেছি।”খেলোয়াড় হিসেবে ইংল্যান্ডের ক্লাব ফুটবলে কোম্পানি কিংবদন্তিদের একজন। ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে ১১ মৌসুমে চারটি লিগ শিরোপা ছাড়াও দুটি এফএ কাপ, চারটি লিগ কাপ ও দুটি কমিউনিটি শিল্ড জিতেছেন তিনি। ২০১৯ সালে ইংলিশ ফুটবলে পথচলার ইতি টেনে ফিরে যান নিজ দেশ বেলজিয়ামে। সেখানে আন্ডারলেখটে এক বছর খেলে পরে দায়িত্ব নেন কোচের। সেখান থেকেই এই মৌসুমের আগে ইংলিশ ফুটবলে ফেরেন বার্নলির কোচ হয়ে। এবার সব ঠিকঠাক থাকলে প্রিমিয়ার লিগে প্রত্যাবর্তন হবে তার কোচ হিসেবে।

চ্যাম্পিয়নশিপে যদিও এখনও কিছু মাইলফলকের হাতছানি তাদের আছে। দুইয়ে থাকা শেফিল্ড ইউনাইটেডের চেয়ে ১১ পয়েন্ট এগিয়ে আছে তারা। চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জয় যদিও নাগালেই, তার পরও নিশ্চিত করার ব্যাপার আছে। বাকি ৬ ম্যাচ থেকে ১৩ পয়েন্ট পেলে পয়েন্টের সেঞ্চুরি হবে তাদের, ২০১৩-১৪ মৌসুমে লেস্টার সিটির পর যা এখনও পর্যন্ত কোনো ক্লাব অর্জন করতে পারেনি।এসব মাইলফলক ছোঁয়া তো বটেই, এই দলকে আরও অনেক এগিয়ে নেওয়ার স্বপ্ন দেখছেন কোচ কোম্পানি।“এই দলের মধ্যে বিশ্বাস প্রবল। দলটা এখনও অনেক উন্নতি করতে পারে এবং এটাই সবচেয়ে রোমাঞ্চকর ব্যাপার। এই ছেলেরা একদম বাচ্চাদের মতো, ওরা উদযাপন করছে শিশুর মতো, এটা দেখেই দারুণ লাগছে।”বার্নলির চেয়ারম্যান অ্যালান পেস অকপটেই বলছেন, ক্লাবের এমন ফল তার নিজের কাছেও বড় বিস্ময়।“ভিনসেন্ট ও আমি আমাদের সম্ভাব্য লক্ষ্য নিয়ে এই গ্রীষ্মে কথা বলেছিলাম এবং লম্বা আলোচনাই হয়েছিল আমাদের। নিজেদেরকে দুই-তিন বছর সময় দিয়েছিলাম আমরা। এখন যা দেখতে পাচ্ছেন আপনারা… এটা আসলে অনেক জাদুকরী কিছু একসঙ্গে হয়ে যাওয়ার ফসল।”

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য