Monday, February 6, 2023
বাড়িখেলা‘আবেগের ম্যাচে’ বেঞ্চের শক্তি পরীক্ষায় হারলেন তিতে

‘আবেগের ম্যাচে’ বেঞ্চের শক্তি পরীক্ষায় হারলেন তিতে

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, আগরতলা,৩ ডিসেম্বর: বেঞ্চের শক্তি পরীক্ষায় অবশ্য তেমন কোনো সুখবর পায়নি ব্রাজিল। দোহার লুসাইল স্টেডিয়ামে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ক্যামেরুনের বিপক্ষে হেরেছে ১-০ গোলে। এতে থেমেছে ১৭ ম্যাচের অপরাজেয় যাত্রা।আগেই নক আউট পর্ব নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া ছাড়া আর তেমন কিছু পাওয়ার ছিল না ব্রাজিলের। তাই দলের চেহারা আমূল বদলে ফেলেন তিতে। নয় পরিবর্তন এনে খেলান অনিয়মিতদের। প্রথমবারের মতো বিশ্ব মঞ্চে আফ্রিকার কোনো দেশের বিপক্ষে হারলেও চাওয়া পূরণ হয়েছে ব্রাজিলের। গোল পার্থক্যে এগিয়ে থেকে গ্রুপ সেরাই হয়েছে তারা। কোয়ার্টার-ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে তাদের প্রতিপক্ষ ‘এইচ’ গ্রুপের রানার্সআপ দক্ষিণ কোরিয়া। যারা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর পর্তুগালকে হারিয়েছে ২-১ গোলে।এতো পরিবর্তন আনলেও ব্রাজিল খেলছিল ব্রাজিলের মতোই। তৈরি করেছিল অসংখ্য সুযোগ। গাব্রিয়েল মার্তিনেল্লি, রদ্রিগো, আন্তোনি ও গাব্রিয়েল জেসুসরা সবাই সুযোগ নষ্টের মিছিলে যোগ দেওয়ায় কাঙ্ক্ষিত ফল পায়নি ব্রাজিল।ক্যামেরুনের জয়ে পোস্টের নিচে পাহাড়সমান দৃঢ়তা নিয়ে থাকা দেভিস এপাসির কৃতিত্বও অনেক। ২৯ বছর বয়সী এই গোলরক্ষক দারুণ সব সেভে বিমুখ করেন ব্রাজিলকে। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে ভিনসেন্ট আবুবাকার গড়ে দেন ম্যাচের ভাগ্য।

৮৮ হাজার দর্শকধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন লুসাইল স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে ছিল হলুদ সমর্থকদের ভিড়। হাতে গোনা ক্যামেরুনের কিছু সমর্থক এসে বসেছিলেন মিডিয়া ট্রিবিউনের নিচের দিকের অংশে। সেলেসাও সমর্থকদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে শুরু থেকে ঢাক-ঢোল পিছিয়ে দলকে অনুপ্রেরণা দিতে থাকেন তারাও। ব্রাজিল সমর্থকরা গর্জে উঠলে অবশ্য মিইয়ে যাচ্ছিল তাদের আওয়াজ।দুই দলের খেলোয়াড়দের নাম ঘোষণার সময় স্টেডিয়ামের জায়ান্ট স্ক্রিনে ভেসে ওঠে নেইমারের মুখ। চিন্তিত দেখায় তাকে। চোটের কারণে তার জায়গা আপাতত বেঞ্চে। এরপরই জাতীয় সঙ্গীত শেষে গ্যালারিতে কিংবদন্তি পেলের সুস্থতা কামনার ওই বার্তা ভেসে ওঠে। ম্যাচটির আবহও যেন বদলে যায়, হয়ে ওঠে আবেগের।শারীরিক কিছু সমস্যা দেখা দেওয়ায় গত বছরের সেপ্টেম্বরের শুরুতে নিয়মিত পরীক্ষার অংশ হিসেবে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল পেলেকে। ওই সময় তার বৃহদান্ত্রে টিউমার ধরা পড়ে এবং অস্ত্রোপচার করা হয়। এরপর পুরোপুরি সুস্থ হননি পেলে। গত বুধবার সাও পাওলোর আলবার্ট আইনস্টাইন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাকে। শুরুতে হৃদযন্ত্রের সমস্যার কথা শোনা গেলেও, পরে পেলের মেয়ে জানান নিয়মিত চেক-আপের অংশ হিসেবে তাকে নেওয়া হয়েছে হাসপাতালে।কিংবদন্তির অসুস্থতার খবর পেয়ে তার আরোগ্য কামনায় প্রার্থনায় বসে ভক্তরা। ব্রাজিল কোচও দলের পক্ষ থেকে বার্তা পাঠিয়েছিলেন। ব্রাজিল জিতলে হয়তো আরও ভালো লাগতো পেলের। তবে কাতার বিশ্বকাপ যে চমকে ভরা গ্রুপ পর্ব উপহার দিলো সেটাও এই কিংবদন্তির উপভোগ না করার কোনো কারণ নেই। 

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য