Tuesday, July 16, 2024
বাড়িজাতীয়কাশ্মীরের বিজেপির নেতাদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

কাশ্মীরের বিজেপির নেতাদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ৫ জুলাই: অমরনাথ যাত্রা শেষ হতেই সম্ভবত কাশ্মীরের বিধানসভা নির্বাচনের ঢাকে কাঠি পড়ে যাবে। বিজেপির দলীয় সূত্রে এমনই ইঙ্গিত। বৃহস্পতিবার দলের কাশ্মীরের নেতাদের নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সেখানেই তিনি ইঙ্গিত দেন, অমরনাথ যাত্রার পরই কাশ্মীরের ভোট ঘোষণা হয়ে যাবে। সেই মতো বিজেপি নেতাদের প্রস্তুত হওয়ারও নির্দেশ দেন শাহ ।

আগামী ১৯ আগস্ট পর্যন্ত চলবে অমরনাথ যাত্রা। তারপরই নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে শাহ দলের কর্মীদের জানিয়ে দিয়েছেন। সূত্রের খবর, বিজেপি জম্মু ও কাশ্মীরের নির্বাচনে সরাসরি কোনও দলের সঙ্গে জোটে যেতে চাইছে না। তবে সমমনোভাবাপন্ন দলগুলির সঙ্গে আসন সমঝোতার কথা ভাবা যেতে পারে। বিধানসভা নির্বাচনে কাউকে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ হিসাবে তুলে ধরা হবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন শাহ।

২০১৮ সালের নভেম্বর মাসের পর জম্মু ও কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচন হয়নি। ২০১৯ সালে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করা হয়। জম্মু ও কাশ্মীরকে ভেঙে দেওয়া হয় দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে- জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ । তার পর দীর্ঘদিন চলেছে উপত্যকার আসন পুনর্বিন্যাস প্রক্রিয়া। গত মে মাসে জম্মু ও কাশ্মীর পুনর্বিন্যাস খসড়া প্রস্তুত করে সরকারের তৈরি কমিটি। ওই মাসেরই ২০ তারিখে বিজ্ঞপ্তি জারি করে তা বলবৎ করে কেন্দ্র সরকার। তারপর থেকেই জল্পনা শুরু হয়, চলতি বছরেই নির্বাচন হতে পারে জম্মু ও কাশ্মীরে।

তাছাড়া ৩৭০ ধারা বাতিল সংক্রান্ত মামলায় গত ২৯ আগস্ট শীর্ষ আদালত জানিয়ে দেয়, উপত্যকায় গণতন্ত্রের পুনরুত্থান জরুরি। ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৪ সালের মধ্যে সেরাজ্যের নির্বাচন করাতে হবে। কতদিনে কাশ্মীরকে পূর্ণরাজ্যের মর্যাদা ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব, সেটা স্পষ্ট করে জানাতে হবে কেন্দ্রকে। এখনও পূর্ণরাজ্যের মর্যাদা ফেরানোর কোনও সময়সীমা জানাতে পারেনি মোদি সরকার। তবে আদালতের বেঁধে দেওয়া সময়সীমার মধ্যেই যে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলটিতে নির্বাচন হবে, সেটা বারবার বলেছেন মোদি সরকারের মন্ত্রীরা। সেটাই স্পষ্ট হয়ে গেল বিজেপির প্রস্তুতি বৈঠকে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য