Friday, May 31, 2024
বাড়িজাতীয়স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে প্রথমবার অস্ত্র রপ্তানিতে নজির ভারতের।

স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে প্রথমবার অস্ত্র রপ্তানিতে নজির ভারতের।

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১ এপ্রিল : দীর্ঘ বছর ধরে যে বাজারে একচেটিয়া ভাবে ‘রাজ’ করে আসছিল পশ্চিমী দেশগুলি। সেখানেই এবার নিজের অস্তিত্ব জানান দিল ভারত। প্রথমবার বিশ্ব বাজারে ২১ হাজার কোটি টাকার বেশি অস্ত্র রপ্তানি করে নজির গড়ল দেশ। সোমবার সোশাল মিডিয়ায় এই তথ্য প্রকাশ করলেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং । আত্মনির্ভর ভারতের লক্ষ্যে এই সাফল্যের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসাও করলেন তিনি।

এক্স হ্যান্ডেলে দেশের সাফল্যের এই তথ্য প্রকাশ্যে এনে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং লেখেন, “অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে দেশবাসীকে জানাতে চাই দেশের যুদ্ধাস্ত্র ও প্রতিরক্ষা সামগ্রী রপ্তানিতে অভূতপূর্ব সাফল্য পেয়েছি আমরা। চলতি অর্থবর্ষে ২১ হাজার কোটি টাকার প্রতিরক্ষা সামগ্রী রপ্তানি করা হয়েছে। স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে এই ঘটনা প্রথমবার।” প্রতিরক্ষামন্ত্রী আরও জানান, “২০২৩-২৪ অর্থবর্ষের তুলনায় এবার ৩২.৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে প্রতিরক্ষা সামগ্রীর রপ্তানি। টাকার অংকে যা ২১ হাজার ৮৩ কোটি।”

প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে এই সাফল্যের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ধন্যবাদ জানান রাজনাথ সিং। এক্স হ্যান্ডেলে তিনি লেখেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দূরদর্শীতা ও তাঁর নেতৃত্বের জন্যই এই সাফল্যের সামনে দেশ। পাশাপাশি এই শিখর ছোঁয়ার পিছনে যাঁদের অপার সহযোগিতা তাঁদের প্রত্যেককে অভিনন্দন।”

অস্ত্র আমদানিকারী দেশের তালিকায় ভারতের স্থান থাকলেও সাম্প্রতিক সময়ে আত্মনির্ভর ভারতের ডাক দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এক্ষেত্রে আমদানি প্রক্রিয়া জারি থাকলেও অস্ত্র রপ্তানিতে কোমর কষতে শুরু করে দেশ। গত কয়েক বছরে এক্ষেত্রে বিপুল সাফল্য নজরে আসে। ২০২২ সালের জানুয়ারি মাসে ফিলিপিন্সের সঙ্গে ব্রহ্মোস সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইলের চুক্তি হয় ভারতের। যেখানে টাকার অঙ্ক ছিল ৩৭ কোটি ডলার। সামরিক ক্ষেত্রে বেসরকারি সংস্থাগুলির অংশগ্রহণে দেশের প্রতিরক্ষা রপ্তানিও উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ে। বর্তমানে ৮৫ টিরও বেশি দেশের সঙ্গে বাণিজ্যিকভাবে চলছে প্রতিরক্ষা সামগ্রীর রপ্তানি। দেশের শতাধিক সংস্থা প্রতিরক্ষা সামগ্রী উৎপাদনের কাজে হাত লাগিয়েছে। উৎপাদনের তালিকায় রয়েছে ফাইটার প্লেন, মিসাইল, রকেট লঞ্চার ইত্যাদি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য