Tuesday, July 16, 2024
বাড়িজাতীয়নতুন মাছ আবিষ্কার: ভারতীয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ডিক্যাপ্রিও

নতুন মাছ আবিষ্কার: ভারতীয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ডিক্যাপ্রিও

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,২৬ জুলাই: প্রায় তিন বছর আগে বিরল এক নতুন প্রজাতির মাছ আবিষ্কার করেছিলেন ভারতীয় নাগরিক আব্রাহাম এ। সে ঘটনায় সম্প্রতি অনলাইনে তাকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন টাইটানিক সিনেমার নায়ক ও হলিউড সুপারস্টার লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও।বিবিসি জানায়, ভারতের কেরালা রাজ্যের অধিবাসী আব্রাহাম এক সময় আধা-সামরিক বাহিনীর সেনা ছিলেন। ২০২০ সালে তিনি ‘পাথালা ইল লোচ’ নামের নতুন প্রজাতির মাছ খুঁজে পান।মাছটির এই নাম সংস্কৃত শব্দ পাথালা থেকে এসেছে, যার অর্থ ‘পায়ের নিচে’। অর্থাৎ, যাকে আমরা পাতাল বলি। সাধারণত ভূ-গর্ভস্থ পানির নিচে থাকে বলেই মাছটির এমন নাম দেওয়া হয়েছে।

ছোট, সাপের মতো দেখতে এই প্রজাতির মাছ ‘অ্যাকুইফার’ স্তর অর্থাৎ, ভূগর্ভস্থ পানি ধরে রাখা শিলা কিংবা পলির অংশের স্তরে বাস করে। ভারত, চীন ও মেক্সিকোয় এ মাছের দেখা পাওয়া যায়।আব্রাহাম বর্তমানে কেরালার আলাপুজায় থাকেন। তিনি বলেন, দৈব্যক্রমে এ মাছ আবিষ্কার করেছিলেন তিনি। গোসল করার সময় বালতিতে একটি লাল সুতোর মতো জিনিস দেখতে পেয়েছিলেন। কৌতূহলী হয়ে আরও কাছ থেকে সেটি দেখার চেষ্টা করেন । তখনই বুঝতে পারেন, সুতোটি নড়ছে।পরে আব্রাহাম এটিকে একটি কাচের বয়মের মধ্যে নিয়ে স্থানীয় কলেজের অধ্যাপক ডক্টর বিনয় থমাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। থমাস তাকে ‘কেরালা ইউনিভার্সিটি অব ফিশারিজ অ্যান্ড ওশান স্টাডিজ’ (কুফোস) এর গবেষকদের সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দেন।

এরপর কুফোস নতুন প্রজাতির মাছটি শনাক্ত করে। এর পরের কয়েক সপ্তাহে আব্রাহামের কুয়া ও ট্যাংকের পানিতে আরো চারটি একই প্রজাতির মাছ খুঁজে পান গবেষকরা।   এই মাছ দেখার পর গত সপ্তাহে হলিউড সুপারস্টার ডিক্যাপ্রিও ইনস্টাগ্রামে ‘পাথালা ইল লোচ’ এর একটি রঙিন ছবি পোস্ট করে আব্রাহামের প্রশংসা করেন। আর তাতেই আব্রাহামের এই আবিষ্কারটি আবার নতুন করে সামনে আসে। পোস্টে ডিক্যাপ্রিও লেখেন, “প্রাকৃতিক এসব জীব আমাদের চারপাশেই আছে। কখনও কখনও একটা সাধারণ দিনেই এরকম একটি নতুন প্রজাতি আবিষ্কার হয়ে যেতে পারে।”নাগরিক বিজ্ঞান কীভাবে গবেষকদেরকে ভূগর্ভস্থ বাস্তুতন্ত্র সম্পর্কে জানতে সাহায্য করছে সে বিষয়টিতেই ডিক্যাপ্রিও তার পোস্টে গুরুত্বারোপ করেছেন। হলিউড অভিনেতার প্রশংসার জবাবে আব্রাহাম বলেছেন, “আবিষ্কারটি শুরু থেকেই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ডিক্যাপ্রিওর পোস্টের পর এর গুরুত্ব আরও বেড়ে গেল। এত বড় একজন মানুষ আমার নাম নিয়েছেন। আমি উচ্ছ্বসিত এবং খুবই খুশি।”

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য