Wednesday, July 24, 2024
বাড়িবিশ্ব সংবাদউদ্বেগ থাকলেও বাইডেনকেই সমর্থন ডেমোক্রেটিক পার্টির গভর্নরদের

উদ্বেগ থাকলেও বাইডেনকেই সমর্থন ডেমোক্রেটিক পার্টির গভর্নরদের

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ৪ জুলাই: ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে প্রথম নির্বাচনী বিতর্কে ভালো করতে না পারার কারণে জো বাইডেনের ওপর নির্বাচনী দৌড় থেকে সরে দাঁড়ানোর চাপ প্রতিনিয়ত বাড়ছে। এ অবস্থায় গতকাল বুধবার ডেমোক্রেটিক পার্টির একদল প্রভাবশালী গভর্নর প্রকাশ্যে বাইডেনের প্রতি তাঁদের সমর্থন থাকার কথা জানিয়েছেন।গভর্নরদের ওই দলে মিনেসোটার টিম ওয়ালজ, মেরিল্যান্ডের ওয়াস মোর, ক্যালিফোর্নিয়ার গ্যাভিন নিউসম এবং নিউইয়র্কের ক্যাথি হোকলও ছিলেন। তাঁরা ওয়াশিংটনে বাইডেনের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন।হোয়াইট হাউসে হওয়া ওই বৈঠক এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলে, যেখানে বাইডেন তাঁর দলের ২০ জনের বেশি গভর্নরের সঙ্গে সরাসরি ও ভার্চ্যুয়ালি কথা বলেন।

বৈঠক শেষে গভর্নররা সাংবাদিকদের বলেন, তাঁরা বৈঠকে ‘খোলাখুলি’ আলোচনা করেছেন। তাঁরা গত সপ্তাহের নির্বাচনী বিতর্কে বাইডেনের ‘নিষ্প্রভ’ উপস্থাপন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। বলেছেন, আগামী নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হারানোই এখন তাঁদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু তাঁরা এখনো বাইডেনের পাশেই আছেন এবং বাইডেনের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেওয়ার দাবি তোলা ডেমোক্র্যাটদের দলে যোগ দিচ্ছেন না।মিনেসোটার গভর্নর ওয়ালজ বলেন, ‘অন্য অনেক আমেরিকানের মতো আমরাও উদ্বিগ্ন। আমরাও জয়ের পথ খুঁজছি। সব গভর্নর এর সঙ্গে একমত হয়েছেন। প্রেসিডেন্ট বাইডেনও এর সঙ্গে একমত হয়েছেন। কোভিডের সময় থেকেই আমরা তাঁর পাশে আছি…গভর্নররা তাঁর পাশে আছেন।’

মেরিল্যান্ডের গভর্নর মোর বলেন, ‘প্রেসিডেন্টই আমাদের প্রার্থী। প্রেসিডেন্টই আমাদের দলের নেতা।’এমন একটি দিনে বাইডেন তাঁর দলের গভর্নরদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন, যে দিনটি ছিল তাঁর জন্য দারুণ টালমাটালের। বাইডেনের নিজ দলের কয়েকজন সদ্য ও ডেমোক্রেটিক পার্টির একজন বড় দাতা এদিন বাইডেনের স্বাস্থ্যের অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তাঁকে প্রকাশ্যে সরে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন। গভর্নরদের সঙ্গে বাইডেনের বৈঠক এবং বাইডেনের প্রতি তাঁদের সমর্থন অশান্ত ওই দিনটিকে আপাত নিয়ন্ত্রণে এনেছে।এমনকি দলের ভেতরের চাপের মুখে বাইডেন পদত্যাগ করতে পারেন—এমন একটি আলোচনাও চাউর হয়েছিল। গতকাল এক প্রশ্নের জবাবে বিষয়টি নাকচ করে দিয়েছেন হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি কারিন জন-পিয়ের।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য