Wednesday, July 24, 2024
বাড়িবিশ্ব সংবাদবিতর্কে বাইডেনের বিপর্যয়ের জন্য দায়ী ‘খারাপ প্রস্তুতি, ক্লান্তি’

বিতর্কে বাইডেনের বিপর্যয়ের জন্য দায়ী ‘খারাপ প্রস্তুতি, ক্লান্তি’

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১ জুলাই: সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে প্রথম নির্বাচনী বিতর্কে জো বাইডেনের বিপর্যয়ের জন্য তার সবচেয়ে ঊর্ধতন উপদেষ্টাদের ধারাবাহিক কিছু সিদ্ধান্তকে দায়ী করেছেন সমালোচকরা। ওই সিদ্ধান্তগুলো বাইডেনকে ভুলপথে চালিত করছে বলে ধারণা তাদের।

ডেমোক্র্যাটিকদের মিত্র, দাতা এবং সাবেক ও বর্তমান সহযোগীদের সাক্ষাৎকারগুলো থেকে এমনটি দেখা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাঠে নামার আগে গত বৃহস্পতিবার প্রথম টেলিভিশন বিতর্কে মুখোমুখি হয়েছিলেন ডেমোক্র্যাট বাইডেন আর রিপাবলিকান ট্রাম্প, যেখানে বয়সী দুই প্রার্থী একে অপরের প্রতি ব্যক্তিগত আক্রমণ শানান।কিন্তু ৯০ মিনিটের এই বিতর্কে ট্রাম্পের (৭৮) একের পর এক কথার বাণে ঘায়েল হন বাইডেন, যদিও সেগুলোর অধিকাংশই ছিল মিথ্যা তথ্যে ভরা এবং অনেকদিন ধরেই বলে আসা পুরনো বিষয়। এমনকী ২০২০ সালের নির্বাচনে ‘আসলে তিনি জিতেছিলেন’ বলেও দাবি করেন ট্রাম্প।

কিন্তু এসবের কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি বাইডেন, জবাব দিতে গিয়েই মাঝেমধ্যে হোঁচট খাচ্ছিলেন, খেই হারিয়ে ফেলছিলেন। বাইডেনকে বেশ কয়েকবারই কর্কশকণ্ঠে কথা বলতে গিয়ে খাবি খেতে দেখা গেছে।৮১ বছর বয়সী বাইডেনের এমন পারফরম্যান্সে হতাশ ডেমোক্র্যাটরা তাকে দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা থেকে সরে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান। অনেকে তার শীর্ষ উপদেষ্টাদের পদত্যাগেরও দাবি জানান।এদের মধ্যে একজন বলেন, “আমার একমাত্র অনুরোধ ছিল বিতর্কের আগে যেন তিনি বিশ্রাম নেন এটি নিশ্চিত করা, কিন্তু তিনি ক্লান্ত ছিলেন। তিনি অসুস্থ ছিলেন। দেখতে অসুস্থ ও ক্লান্ত লাগার পরও তাকে পাঠানো বাজে সিদ্ধান্ত ছিল।”তার এসব অনুরোধ কোনো কাজে আসেনি বলে অভিযোগ করেন তিনি।

ফ্লোরিডাভিত্তিক আইনজীবী ও বাইডেনের গুরুত্বপূর্ণ তহবিল সংগ্রাহক জন মর্গ্যান বলেন, “আমার ধারণা তাকে অতিরিক্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে বাড়তি অনুশীলন করানো হয়েছিল। আর আমার বিশ্বাস (জ্যেষ্ঠ সহযোগী) অনিতা ডান তাকে এমন একটি অনুষ্ঠানস্থলে পাঠিয়েছিলেন যেটি তার জন্য না, ট্রাম্পের জন্য অনুকূল ছিল।”মগ্যান বলেন, “ডান ও তার স্বামী বব বাউয়ারকে চিরতরের জন্য বহিষ্কার করা উচিত এবং কখনোই প্রচারণা শিবিরের ধারের কাছে তাদের আসতে দেওয়া উচিত হবে না।”বাইডেনের আইনজীবী বাউয়ার মূল বিতর্কের আগে মহড়ার সময় বাইডেনের বিপক্ষে ট্রাম্পের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন।

বাইডেনের প্রচারণা শিবিরের প্রধান জেন ও’ম্যালি ডিলন বিতর্কের কৌশলটি স্বাক্ষর করেছিলেন, তিনি ২০২০ সালে বাইডেনকে নির্বাচনে জিততে সাহায্য করেছিলেন। জানুয়ারিতে তাকে এই পদে নিয়োগ দেওয়া হয়। ডান দীর্ঘদিন ধরে বাইডেনের সহযোগী হিসেবে কাজ করছেন এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওমাবার কৌশলবিদ ছিলেন, তিনি ওই বিতর্কের কৌশলটিতে সমর্থন যুগিয়েছিলেন।বিতর্কের আগে আত্মবিশ্বাস উত্তুঙ্গে ছিল। ট্রাম্প আদালত কর্তৃক দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন আর বাইডেন ইউরোপে পরপর দুইবার সফর করে এসেছেন। এ সময় জরিপে বাইডেনের সমর্থনও কিছুটা বাড়তে দেখা যাচ্ছিল।

উপদেষ্টারা একটি কঠোর বিতর্ক প্রস্তুতির সূচী তৈরি করে ক্যাম্প ডেভিডে ছয়দিন বাইডেনকে আলাদা করে রেখে প্রশিক্ষণ দেন। এখানে বাইডেনের একান্ত ঘনিষ্ঠ সহযোগীরা ছিলেন। তাদের কেউ কেউ কয়েক দশক ধরে বাইডেনের ঘনিষ্ঠ।তবে ব্যাপক সমালোচনা সত্ত্বেও বাইডেনের প্রচারণা শিবির শুক্রবার জানিয়েছে, প্রেসিডেন্টের কর্মীদের পরিবর্তন করার বিবেচনা করা হচ্ছে না।প্রচারণা শিবিরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শুধু ডান আর বাউয়ার নন আরও অনেক সহযোগীই এক প্রস্তুতিতে জড়িত ছিলেন। আর মর্গ্যান সেখানে ছিলেন না বলে জানিয়েছেন তারা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য