Friday, August 19, 2022
বাড়িরাজ্যআক্রান্ত সাংবাদিক তাপস দাসকে হাসপাতালে দেখতে গেলেন বিরোধী দলনেতা

আক্রান্ত সাংবাদিক তাপস দাসকে হাসপাতালে দেখতে গেলেন বিরোধী দলনেতা

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৪ জুলাই : শাসক দলের দুর্বৃত্তদের দ্বারা স্যন্দন পত্রিকার আক্রান্ত প্রবীণ সাংবাদিক তাপস দাসকে সোমবার দুপুরে জিবি হাসপাতালে দেখতে গেলেন বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার। তিনি হাসপাতালে গিয়ে আক্রান্ত প্রবীণ সাংবাদিকের সাথে দীর্ঘক্ষণ কথা বলে শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন। পাশাপাশি সঠিক চিকিৎসা পরিষেবা যাতে পান, তার জন্য কথা বলেন চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের সাথে। ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, ছাপ্পা ভোট ও ভোট লুট এগুলি তারা গত সাড়ে চার বছর ধরে চলেছে।

 আর এগুলি খবরে প্রকাশ করা যাচ্ছে না। খবরে প্রকাশ করলে এভাবে আক্রান্ত হতে হচ্ছে। শাসক দল যদি মনে করে দুর্বৃত্তদের দ্বারা তারা এই পদ্ধতি অব্যাহত রেখে ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারবে, তাহলে জেনে রাখা ভালো এই পদ্ধতি বেশি দিন চলবে না। এ ধরনের ঘটনা মেনে নেওয়ার মতো নয়। এর বিরুদ্ধে সকলকে প্রতিবাদে এগিয়ে আসা দরকার। কারণ সীমার বাইরে চলে গেছে তারা। তাই এই ধরনের আক্রমণ তীব্র ভাষায় নিন্দা জানানো হচ্ছে বলে জানান বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার।  

বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার আরো বলেন, গত এক জুলাই রাজ্যের মুখ্য সচিবের সাথে দেখা করে বলা হয়েছে সংবাদ মাধ্যমের উপর আক্রমণ বন্ধ করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করতে। যারা এ ধরনের আক্রমণের ঘটনা সংঘটিত করছে তাদের অবিলম্বে গ্রেফতার করা দরকার। কারণ সংবাদ মাধ্যম যদি স্বাধীন ভাবে কাজ করতে না পারে বা তাদের অধিকার হারায় তাহলে কিছুই বাকি থাকবে না। তাই মুখ্য সচিবের কাছে দাবি জানানো হয়েছিল তিনি যাতে ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। কিন্তু এরই মধ্যে আবারো সাংবাদিক আক্রান্তের ঘটনাটি ঘটেছে। দাবি জানানো হচ্ছে যারা এ ধরনের ঘটনার সাথে জড়িত তাদের যাতে পুলিশ অবিলম্বে গ্রেফতার করে কঠোর সাজার ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

কিন্তু ঘটনা পর খবর লেখা পর্যন্ত কোন দুর্বৃত্ত গ্রেপ্তার হয়নি। থানায় মামলা দায়ের করার পরও পুলিশের ভূমিকা নিয়ে ক্রমাগত উঠছে প্রশ্ন। কাদের আঙ্গুলিহেলনে পুলিশের এই ভূমিকা। তবে সাংবাদিকদের উপর লাগাতার আক্রমণে তীব্র নিন্দা ঝড় করছে গোটা রাজ্যে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য