Saturday, July 2, 2022
বাড়িরাজ্যবাইক বাহিনীর হামলায় ভাঙচুর বাড়িঘর

বাইক বাহিনীর হামলায় ভাঙচুর বাড়িঘর

আগরতলা। ১৯ মে : শাসক দলের মতবিনিময় সভা শেষ হতেই আক্রমণ বিরোধী দলের এক কর্মী বাড়িতে। ভাঙচুর করা হয় বাড়িঘর। বাইক বাহিনীর তান্ডব যদিও এলাকায় নতুন নয়। কিন্তু বুধবার শাসক দলের মতবিনিময় সভা করে আবারো মাইলেজ দিল বাইক বাহিনীকে। উন্মাদ কর্মী সমর্থকরা মত বিনিময় সভার পর বিরোধীদের উপর আক্রমণ করার পরিকল্পনা নেয় বলে বিরোধীদের পক্ষ থেকে হচ্ছে অভিযোগ।

 আর এর প্রতিফলন চরিলাম বিধানসভার দক্ষিণ ব্রজপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ৫ নং ওয়ার্ড এলাকায়। ঘটনার বিবরণে জানায় এলাকার বাসিন্দা সঞ্জয় মল্লিকের বাড়িতে বুধবার রাত সাড়ে ১০ টা নাগাদ ২০-২৫ জন আচমকা লাঠি সোটা নিয়ে আক্রমণ চালায়। ঘরের টিনের বেড়া ভেঙে ফেলে, দরজা ভাঙার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ। সঞ্জয় মল্লিকের আরো অভিযোগ তিনি পূর্বে বিরোধী দলের কর্মী ছিলেন। ২০১৫ সাল থেকে তিনি কর্মসূত্রে বাড়ির বাইরে থাকতেন। বিগত বছর বাড়িতে এসেছেন। এখন গাড়ি চালিয়ে সংসার প্রতিপালন করেন। বর্তমানে কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জড়িত নন। ঠিক কি কারণে বুধবার রাতে তার বাড়িতে আক্রমণ চালিয়েছে তা তিনি জানেন না। তিনি আরও অভিযোগ করেন দুস্কৃতিকারীরা প্রত্যেকে কাপড় দিয়ে মুখ বেঁধে রেখেছিল। কিন্তু যে লাঠি গুলো দিয়ে তার বাড়িতে আক্রমণ চালানো হয়েছে লাঠি গুলোর মধ্যে বিজেপি দলের পতাকার ছেঁড়া টুকরো অংশ লাগানো ছিল। তাই এ ঘটনার সঙ্গে বিজেপি দলের বাইক বাহিনী জড়িত বলে তিনি অভিযোগ করেন। অন্যদিকে চরিলাম বিজেপির মন্ডল সভাপতি রাজকুমার দেবনাথ এই ঘটনার সঙ্গে বিজেপি কর্মীরা কোনোভাবেই জড়িত নয় বলে দাবি করেন। তিনি আরো জানান পারিবারিক বিবাদের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। পারিবারিক বিবাদের ঘটনায় রাজনৈতিক রং লাগানোর চেষ্টা করছে সঞ্জয় মল্লিক। তাই তিনি এই ঘটনা নেক্কারজনক বলে ধিক্কার জানিয়েছেন। ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় বিশালগড় থানার পুলিশ। গত কিছুদিন যাবত রাতের আধারে সমগ্র বিশালগড় মহকুমা জুড়ে এক প্রকার ত্রাস সৃষ্টি করে রেখেছে একদল বিজেপি দুষ্কৃতি।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য