Tuesday, June 28, 2022
বাড়িরাজ্যত্রিপুরা রাবার শ্রমিক ইউনিয়নের গণঅবস্থান

ত্রিপুরা রাবার শ্রমিক ইউনিয়নের গণঅবস্থান

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৭ মে : রাবার শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি, ছাঁটাই শমিকদের পূর্ণবহাল করা এবং সমস্ত রাবার শিল্প টিকিয়ে রাখা সহ ১০ দফা  দাবিকে সামনে রেখে মঙ্গলবার  তিন ঘন্টার গণঅবস্থান সংগঠিত করল ত্রিপুরা রাবার শ্রমিক ইউনিয়ন। এদিন আগরতলা সিটি সেন্টারের সামনে রাবার শ্রমিক ইউনিয়ন ত্রিপুরা রাজ্য কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত গন অবস্থানে উপস্থিত ছিলেন সি ট্যু-র রাজ্য সভাপতি মানিক দে, সাধারণ সম্পাদক শঙ্কর প্রসাদ দত্ত সহ অন্যান্য নেতৃত্ব।

বিদেশ থেকে সিন্থেটিক রাবার আমদানি করে দেশের রাবার শিল্পকে দুর্বল করে দেওয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন সিট্যু-র রাজ্য সভাপতি মানিক দে। মালিক পক্ষ লাভের অংক গুনছে। আর মার খাচ্ছে সাধারণ চাষীরা বলে কটাক্ষ করেন তিনি। তিনি আরো বলেন রাবার শিল্প যাতে আগামী দিনে গোটা দেশবাসীর কাছে তুলে ধরা যায় তার জন্য সরকারকে প্রকল্প চালু করার জন্য দাবি জানানো হয়েছিল। কিন্তু দেখা গেছে কেন্দ্রীয় সরকার এবং রাজ্য সরকার সম্পূর্ণ দায়বদ্ধহীন ভাবে পূর্বে যে সমস্ত সুযোগ সুবিধা রাবার চাষের দিয়েছিল সেই গুলি পর্যন্ত বন্ধ করে দিয়েছে। সরকার চাইছে আবার আগামীদিনে বিদেশ থেকে আমদানি করতে। কিন্তু দেখা গেছে সরকারের এ ধরনের সিদ্ধান্তের ফলে দেশের এবং রাজ্যের আবার চাষীরা কাজ হারিয়ে ফেলছে। এতে করে দেশে রবার শিল্প দুর্বল হয়ে পড়ছে। সরকারের কাছে দাবি জানানো হচ্ছে সরকার যেন রাবার শিল্প তাকে বাঁচিয়ে রাখতে ভাবনা-চিন্তা করে।

কারণ সেই বর্তমান সরকারের আমলে বহু রাবার বাগান বন্ধ হয়ে গেছে। শ্রমিকরা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাই রাবার চাষের দিকে সরকারের গুরুত্ব দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। একই অবস্থা পরিবহন শ্রমিকদের ক্ষেত্রে। পরিবহন শ্রমিকদের উপর আঘাত না নিয়ে নিচ্ছে সরকার। পেট্রোল-ডিজেলের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি করে দেশের শ্রমিক অংশের মানুষকে বিপদে ফেলেছে তারা। তাদের এ ধরনের নীতির কারণে আগামী দিনে দেশ বিপদে পড়বে বলে আশঙ্কা ব্যক্ত করেন মানিক দে। রাজ্যের চার থেকে সাড়ে চার লক্ষাধিক শ্রমিক সঠিকভাবে কাজ করতে পারছে না। তাদের হাতে পয়সা নেই। কারণ শ্রমিকরা সঠিকভাবে টাকা ব্যয় করতে না পারা বাজারে সঙ্কট দেখা দিয়েছে বলে আশঙ্কা ব্যক্ত করেন মানিক দে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য