Wednesday, May 18, 2022
বাড়িরাজ্যআন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কংগ্রেস : বীরজিৎ

আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কংগ্রেস : বীরজিৎ

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৯ এপ্রিল : সরকার যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে তা একটিও রক্ষা করেনি। শুধু দুর্নীতি আর হামলা হুজুতির মধ্যে নিমজ্জিত সরকার। তাই সহসাই আন্দোলনে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কংগ্রেস। শুক্রবার প্রদেশ কংগ্রেস ভবনের সাংবাদিক সম্মেলন করে এ কথা জানান প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বীরজিৎ সিনহা। কেন্দ্র সরকারের পলিসি রাজ্যে বিজেপি সরকার গ্রহন করে চলেছে। ভারতের ২২ টি ভাষা অষ্টম তফসিলে অন্তর্ভুক্ত। হিন্দি ভাষা কি সরকারি ভাষা হিসেবে সরকার ঘোষণা করেছে।

তবে সেসব ভাষাগুলি দেশের বিভিন্ন রাজ্যে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এখন হিন্দি ভাষা ত্রিপুরা রাজ্যের চাপিয়ে দেওয়ার জন্য একটা জোর প্রচেষ্টা চলছে। এতে করে বাংলা এবং ককবরক ভাষাকে উপেক্ষা করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকারের এ ধরনের প্রচেষ্টার তীব্র নিন্দা জানায় প্রদেশ কংগ্রেস। এবং দাবি জানানো হচ্ছে অফিস-আদালতে যেভাবে বাংলা, ককবরক ভাষার গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে সেভাবে আগামী দিনেও গুরুত্ব দিতে হবে। কারন এ ধরনের চক্রান্ত ত্রিপুরা রাজ্যে মানুষ মেনে নেবে না বলে জানান তিনি। বিজেপি সরকার আসার পর রেগা কাজ গরিব মানুষদের জন্য চালু করা হয়েছিল। যাতে বছরে ১০০ দিনের কাজ পায় শ্রমিকরা। কিন্তু এখন দিন দিন রেগার কাজের সংখ্যা হ্রাস পাচ্ছে। রাজ্যকে অর্থ বরাদ্দ কমিয়ে দেওয়া হয়েছে। যেটা রাজ্যে তা লুন্ঠনের খবর রয়েছে কংগ্রেসের কাছে। প্রকল্পের কাজ না করে লুটপাটে ব্যস্ত আছে বিজেপি। মানুষের মুখের গ্রাস কেড়ে নিয়ে গ্রাম অঞ্চলের মানুষের পেটে লাথি মারছে।

রাজ্যের গ্রাম পাহাড়ে হাহাকার চলছে বলে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। এবং গোটা রাজ্যে পানীয় জলের যথেষ্ট অভাব রয়েছে। সেখানে জলের সংকট মেটাতে সরকার যাতে জলের ট্যাঙ্ক দিয়ে গ্রামে গ্রামে জল পাঠায় তার জন্য দাবী জানায় কংগ্রেস। আর জল জীবন মিশনের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে জল পৌঁছানোর যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিজেপি সরকারের, তা পালন না হলে কংগ্রেস প্রস্তুত রয়েছে আন্দোলনে নামবে। কারণ প্রতিশ্রুতি পালন হতে হবে বলে তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন। কারণ বিগত সরকারের আমলেও গ্রাম অঞ্চলের ও প্রত্যন্ত এলাকার মানুষকে পানীয় জল পৌছে দেওয়ার নাম করে ঠকানো হয়েছে। বর্তমানে সেটাই চলছে। সরকারের কাছে প্রশ্ন কবে পৌঁছাবে ঘরে ঘরে জল। আরো বলেন বিভিন্ন দপ্তরে কর আদায়ের পরিমাণ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অবিলম্বে বন্ধ না হলে কংগ্রেস বিভিন্ন অফিস-আদালতে গিয়ে আন্দোলনের করবে বলে জানান তিনি। প্রদেশ কংগ্রেস ভবনে এদিন আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রদেশ কংগ্রেসের পর্যবেক্ষক সারিতা লাইফ্রাং সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য