Wednesday, July 24, 2024
বাড়িরাজ্যপ্রধানমন্ত্রীর দিশা কাজ করলে এক ত্রিপুরা, শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা গড়া সম্ভব : মুখ্যমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রীর দিশা কাজ করলে এক ত্রিপুরা, শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা গড়া সম্ভব : মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২১ জুন : ২১ জুন আন্তর্জাতিক যোগা দিবস। গোটা বিশ্বের সাথে রাজ্যেও দিনটি যথাযথ মর্যাদার সাথে পালন করা হয়। এদিন রাজ্যের মূল অনুষ্ঠানটি হয় হাঁপানিয়া মেলা প্রাঙ্গনে। শুক্রবার হাঁপানিয়া মেলা প্রাঙ্গণে আয়োজিত এদিনের যোগা অনুষ্ঠানে উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা। পাশাপাশি অন্যান্য বিশেষ অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা বিধানসভার উপাধ্যক্ষ রামপ্রসাদ পাল, ক্রীড়া মন্ত্রী টিংকু রায়, মুখ্য সচিব জে কে সিনহা, জিমন্যাস্ট দীপা কর্মকার সহ অন্যান্যরা।

আয়োজিত অনুষ্ঠানের উদ্বোধনের পর যোগার আয়োজন করা হয়। ছাত্র-ছাত্রী, সেনা জওয়ান ও সাধারণ মানুষের সাথে যোগায় অংশ নেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা, মন্ত্রী টিংকু রায়, উপাধ্যক্ষ রামপ্রসাদ পাল সহ অন্যান্য অতিথিরাও। তারপর আয়োজিত অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বক্তব্য রেখে বলেন, যোগার মাধ্যমে মানুষ শারীরিক এবং মানসিক দিকে পুরোপুরি ভাবে সুস্থ থাকতে পারে। শুধু এখানেই শেষ নয়, যোগার মাধ্যমে মানুষ নিজেকে চিনতেও পারে। এতে সমাজের জন্যও ভালো হয়। তাই এই বিষয়টির দিকে সকলকে গুরুত্ব দিয়ে যোগা করার অভ্যেস গড়ে তুলতে হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, সরকার এক ত্রিপুরা শ্রেষ্ঠ ত্রিপুরা এবং এক ভারত শ্রেষ্ঠ ভারত গড়ার কথা বলছে। এর জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যে দিশায় কাজ করছে সে বিষয়ে কাজ করতে হবে।

 এবং প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যোগার মাধ্যমে আমরা সুস্থ পরিবেশ গড়ে তুলতে পারি। তাই যোগা সকলের জন্য আবশ্যক। এমনটাই বললেন মুখ্যমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে মন্ত্রী টিংকু রায় বক্তব্য রেখে বলেন, শুধু একুশে জুন আসলেই যোগা দিবস পালন করলে চলবে না। বছরে ৩৬৫ দিন সকলের যোগা করতে হবে। তিনি আরো বলেন, প্রতিদিন ব্লাড প্রেসার, সুগার সহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে চলেছে। তাই মনি, ঋষিদের মতো আমাদের সকলকে যোগা অভ্যাস করে সুস্থ থাকতে হবে। বিগত দিনে রাজ্যের ছেলেমেয়েরা জাতীয় স্তরে যোগা প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে বিশেষ স্থান দখল করেছে। এর মধ্যে ত্রিপুরায় যোগা ইউনিভার্সিটি গেম অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে রাজ্যের ছেলে মেয়েরা দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেছে। পাশাপাশি জাতীয় স্তরে স্কুল স্পোর্টসের অধীনে আন্ডার ১৭ -এর আয়োজন যখন করা হয়েছিল তখন রাজ্যের ছেলে মেয়েরা গোল্ড সিলভার জয়ী হয়েছে। আগামী দিনেও রাজ্যের ছেলে মেয়েরা যোগাতে জাতীয় স্তরে ত্রিপুরার নাম উজ্জল করবে বলে অনুষ্ঠানে অভিমত ব্যক্ত করলেন মন্ত্রী টিংকু রায়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য