Tuesday, July 16, 2024
বাড়িরাজ্যপ্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানের বাড়ির জানালা ভেঙে চোরের দল নগদ অর্থ সহ স্বর্ণালঙ্কার...

প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধানের বাড়ির জানালা ভেঙে চোরের দল নগদ অর্থ সহ স্বর্ণালঙ্কার লুট

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৪ জুন।  ফের চোর আতঙ্কে কদমতলা ব্লক এলাকার জনগন।এবার ভয়ংকর চুরি কান্ড কদমতলা থানা এলাকায়। জানা গেছে, নগদ অর্থ সহ স্বর্নালংকার হাতিয়ে নিয়ে গা ঢাকা দেয় নিশি কুটুম্বের দল। এই ঘটনায় আতঙ্ক বিরাজ করছে কদমতলার ঝেরঝেরি গ্রামে। ঘটনা বৃহস্পতিবার রাত একটা নাগাদ ঝেরঝেরি গ্রাম পঞ্চায়েতের দুই নং ওয়ার্ডে।ঘটনা সম্পর্কে জানাতে গিয়ে বাড়ির মালিক তথা স্থানীয় প্রাক্তন পঞ্চায়েত প্রধান খলিল আহমেদ বলেন প্রতিদিনের ন্যায় রাতের খাবার সেরে ঘুমিয়ে পড়েন তিনি সহ পরিবারের লোকজনরা। কিন্তু রাত দুইটা নাগাদ চোরের দল বাড়ির পেছনের জানালা ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে। তখন বারান্দায় লাগানো ইলেকট্রিক বাল্ব গুলো খুলে নেয় চোরেরা।

 পরে তারা ঘরে একটি ব্যাগে রাখা নগদ দুই লক্ষ ষাট হাজার টাকা ও দুটি স্বর্নের চুড়ি এবং অন্যান্য স্বর্ণালংকার মিলে প্রায় কয়েক লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয় নিশি কুটুম্বের দল। তবে তারা প্রতিটি ঘরের দরজা ও জানালা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করেছে।

এদিকে বাড়ির মালিক খলিল আহমেদ জানান, ঘটনার সময় তিনি প্রাকৃতিক কাজের জন্য বাইরে বের হলেও বাড়িতে চোরের কোন আঁচ করতে পাননি তিনি। অথচ চোরেরা তখন ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে হাত সাফাই করছিল বলে ধারণা। বাড়ির লোকজনদের ধারণা স্প্রে জাতীয় কোন কিছু ব্যবহার করে এই ঘটনা সংঘটিত করেছে চোরেরা। তাছাড়া তাদের ঘরের পেছনে একটি মৌচাক ভেঙে মধুও পান করেছে চোরের দল। কিন্তু অবাক করার বিষয়, চোরের দল ঘরে প্রবেশ করার পর অনেক ভাঙ্গচোর চালালেও ঘরে থাকা লোকজনরা কিছুই টের পাননি। তাতেই স্পষ্ট নিজেদের সুকৌশলে তাদের কাজ সম্পূর্ণ করেছে নিশি কুটুম্বের দল। চুরি কান্ডের এই ঘটনা লিখিত আকারে কদমতলা থানায় জানানোর পর পুলিশ তড়িঘড়ি ছুটে আসে ঘটনাস্থলে। তবে এখন পর্যন্ত চোরেদের টিকির নাগালও পায়নি পুলিশ।

 অপরদিকে বাড়ির মালিক খলিল আহমেদ জানান, তাকে হয়তো প্রাণনাশের চেষ্টাও করেছিল চেরেরা। কারণ তিনি যে ঘরে থাকেন সেই ঘরে কোন টাকা পয়সা বা মূল্যবান সামগ্রী ছিল না তবুও উনার ঘরের দরজায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে ভাঙ্গার অনেক চেষ্টা করেছে চোরেরা। যদিও এতে সফল হয়নি। ফলে তিনি এখন প্রাণ সংশয়ে ভুগছেন। এখন দেখার বিষয় পুলিশ চোর চক্রকে জালে তুলতে পারে কিনা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য