Saturday, June 15, 2024
বাড়িরাজ্যরক্তদান জীবন বাঁচায় : সুশান্ত

রক্তদান জীবন বাঁচায় : সুশান্ত

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৯ জুন : রক্তদান জীবন বাঁচায়। আসুন আমরা রক্তদান নিয়ে সচেতনতা বাড়িয়ে তুলি এবং রক্তের প্রয়োজন আছে এমন ব্যক্তিরা যাতে সময়মত সুলভে উৎকৃষ্ট রক্ত পান তা সুনিশ্চিত করি। স্বেচ্ছায় রক্তদান একটি মানবিক দায়বদ্ধতা ও সামাজিক অঙ্গীকার। রক্তদান মহৎ দানও বটে। নিজের রক্ত দিয়ে অন্যের জীবন বাঁচানো এক মহৎ কাজ।

 রবিবার দুপুরে মজলিশপুর বিধানসভা কেন্দ্রের জিরানিয়া পঞ্চায়েত সমিতির অন্তর্গত বড়জলা বীণাপানি বিদ্যালয় পরিসরে ১০-মজলিশপুর মন্ডলের বিজেপির জনজাতি মোর্চার উদ্যোগে আয়োজিত এক স্বেচ্ছায় মহতি রক্তদান শিবিরে উপস্থিত থেকে মঙ্গলদ্বীপ প্রজ্জ্বলিত করে এই রক্তদান শিবিরের আনুষ্ঠানিক শুভ উদ্বোধন করার পর কথাগুলি বললেন মজলিশপুর কেন্দ্রের বিধায়ক তথা রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী।

তিনি বলেন, মানবিক কার্যকলাপে অনুপ্রেরণা,উৎসাহ উৎসাহ জোগানো এবং উদ্যোগী হওয়া আমাদের মূল লক্ষ্য হতে হবে। এর ফলে আগামী দিনে মানুষের দূর্ভোগ অনেক কম করা যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

তিনি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা, বেসরকারী সংগঠন এবং সাধারণ মানুষের কাছে রক্তদানে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান, এর ফলে রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংক গুলিতে জরুরি প্রয়োজনে রক্তের মজুতের পরিমান সঠিক মাত্রায় বজায় থাকবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

স্বেচ্ছায় রক্তদানকারিদের উৎসাহ দিয়ে মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী বলেন, মানুষের জীবন বাঁচানো মনুষ্যত্বের একটি বড় দিক। যে কোনো সুস্থ ব্যক্তি ৬৫ বছর বয়স পর্যন্ত রক্তদান করতে পারেন। বছরে চার বার রক্তদান করলে সুস্থ থাকা যায় বলে তিনি জানান। তিনি বলেন রক্তদান করলে রক্তদান কারীরাও অনেক রকম ভাবে সুস্থ থাকতে পারেন। রক্তদান করলে,হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে,পাশাপাশি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন,কোলস্টরেলের মাত্রা কম হয়, তাতে মেদবহুলতা কমে।

তিনি আরও বলেন, রাজ্যের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী রক্তদান শিবির গুলিতে গিয়ে রাজ্যবাসীকে স্বেচ্ছায় রক্তদান করার জন্য  অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছেন। মুখ্যমন্ত্রীর আহবানে আজ বিভিন্ন সংস্থা ও সংগঠনের পক্ষ থেকে রক্তদান শিবিরে আয়োজন উৎসবে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি  মজলিশপুর মন্ডল থেকে ৫০০ ইউনিট রক্ত সংগ্রহ করার। এই কর্মসূচির সূচনা হয়েছে গত কয়েকদিন আগে। এরই অঙ্গ হিসেবে আজকে জনজাতি মোর্চার উদ্যোগে চলছে রক্তদান শিবির। এতে উৎসাহিত এলাকার যুবকরা ও মহিলারা বলে জানান তিনি। পরে মন্ত্রী রক্তদান  শিবির পরিদর্শন করে রক্তদাতাদের উৎসাহিত করেন। তিনি আজকের এই রক্তদান শিবিরে উপস্থিত সকল রক্তদাতাদের তাঁদের এই মহতী সেবামূলক কাজ ও মানসিকতার সাধুবাদ জানিয়ে সকলের সুস্বাস্থ্য ও উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করেন। আজকের এই রক্তদান শিবিরে  অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মজলিশপুর মন্ডলের মন্ডল সভাপতি গৌরাঙ্গ ভৌমিক,  জিরানীয়া পঞ্চায়েত সমিতির ভাইস চেয়ারম্যান প্রীতম দেবনাথ, জনজাতি মোর্চার মন্ডল সভাপতি সুধন দেববর্মা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য