Saturday, June 15, 2024
বাড়িরাজ্যছাত্রীর বাড়ি থেকে সমস্ত নথিপত্র এনে টাকার জন্য ব্ল্যাকমেল এক সংস্থার

ছাত্রীর বাড়ি থেকে সমস্ত নথিপত্র এনে টাকার জন্য ব্ল্যাকমেল এক সংস্থার

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২০ মে : রাজ্যের আনাচে-কানাচে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠেছে বিদ্যা ব্যবসার প্রতিষ্ঠান। বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে বহিঃ রাজ্যের নামিদামি কলেজে পড়াশোনার জন্য পাঠানোর নাম করে বিদ্যা ব্যবসায় মেতে উঠেছে একাংশ বিদ্যা ব্যবসায়ীরা। একইভাবে গোলাঘাটি বিধানসভার অন্তর্গত কাঞ্চনমালা মুসলিম পাড়ার ১ নং ওয়ার্ডের আকাশ মিয়ার মেয়েকে ব্যাঙ্গালোরে নার্সিং কোর্স করানোর জন্য তার বাড়িতে গিয়ে তার মেয়েকে বিভিন্ন কৌশলে কলেজে ভর্তির খালি ফর্মে স্বাক্ষর করিয়ে ছাত্রীর প্রয়োজনীয় নথিপত্র নিয়ে আসে আগরতলা বড়দোয়ালি স্থিত গুরুকুল এডুকেশন কনসালটেন্সি নামে এক ইনস্টিটিউটের কর্মীরা বলে অভিযোগ।

ছাত্রীটির বাবা আকাশ মিয়া সেদিন রাতে বাড়িতে আসার পর মেয়েকে রাজ্যের বাইরে পাঠাবে না বলে জানিয়ে দেন। সেই অনুসারে আগরতলার বড়দোয়ালী ১০ নং পিলার সংলগ্ন এলাকায় তাদের বিদ্যা ব্যবসার প্রতিষ্ঠানে নিষেধ করতে গেলে তাদের তরফ থেকে বলা হয় কলেজে ভর্তির জন্য বুকিং করা হয়ে গেছে, যার ফলে তাদেরকে নাকি বুকিং বাবদ ১৫ হাজার টাকা দিতে হবে। টাকা না দিলে ছাত্রীর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফেরত দেওয়া হবে না। পরে ওই ছাত্রটির বাবা সেখান থেকে বাড়ি চলে আসে।

অবশেষে আবারো সোমবার দুপুরে বড়দোয়ালী স্থিত বিদ্যা ব্যবসার সেই প্রতিষ্ঠানে গিয়ে আকাশ মিয়া তার মেয়ের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফেরত চাইলে সেখান থেকে বলা হয় বুকিং বাবদ ১৫ হাজার টাকা ছাড় দিয়ে অন্তত ৫০০০ টাকা নাকি তাদেরকে দিতেই হবে। আর যদি টাকা না দেওয়া হয় তাহলে ছাত্রীটির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফেরত দেওয়া হবে না জানায়। ছাত্রীর বাবা আকাশ মিয়া সাংবাদিকদের এ বিষয়ে জানিয়েছেন। তিনি জানান অবিলম্বে তিনি আইনের আশ্রয় নেবে। এ ধরনের বেআইনি ব্যবসা কোনভাবেই তিনি গ্রহণ করবেন না।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য