Friday, May 31, 2024
বাড়িরাজ্যরাজ্যে কৃষকদের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন পবিত্র কর

রাজ্যে কৃষকদের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন পবিত্র কর

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৮ মে : মঙ্গলবার সারা ভারত কৃষক সভা রাজ্য সম্পাদক মন্ডলীর সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই সভাতে রাজ্যের সবগুলি জেলার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এদিন সভায় আলোচনার মধ্যে দিয়ে উঠে আসে রাজ্যে বর্তমানে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা কৃষকদের। বুধবার সারা ভারত কৃষক সভা রাজ্য কমিটির কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই কথা বলেন সারা ভারত কৃষক সভার রাজ্য কমিটির সম্পাদক পবিত্র কর।

তিনি বলেন রাজ্যের পাঁচটি জেলাতে বোরো ধান চাষ হয়। কিন্তু এবছর জলের সংকটে বোরো ধান ৫০ শতাংশ জমিতে ফলন করা সম্ভব হয়নি। আউশ ধান কমলপুর ছাড়া বাকি জায়গাগুলিতে তেমনভাবে চাষ হয়নি। এ অবস্থায় সরকারের দিক থেকে চাষীদের কোন ধরনের সহযোগিতা করা হয়নি। তিনি সাংবাদিক সম্মেলনে আরো অভিযোগ তুলে বলেন গত তিন থেকে চার মাস ধরে গ্রামাঞ্চলে প্রচন্ড অভাব অনটন চলছে। কারণ গত তিন চার মাস রেগার কোন কাজ নাই, প্রচন্ড অভাব অনটন সর্বত্রে। বিশেষ করে উপজাতি এলাকা গুলোতে যারা কাজ করেছিল তাদের বকেয়া মিটিয়ে দেয়নি সংশ্লিষ্ট দপ্তর। অপরদিকে রাবারের দাম প্রচন্ড ভাবে বেড়ে যাবার ফলে রাবার চাষীরা প্রচন্ড ভাবে বিপর্যস্ত।

 কেরালার কৃষক সভা সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছেন, রাজ্যের কৃষকরাও এতে যুক্ত হওয়ার চিন্তাভাবনা করছে। তিনি আরো অভিযোগ তুলে বলেন, গত ডিসেম্বর দুবার প্রাকৃতিক দুর্যোগে কৃষকদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছিল, কিন্তু কোন সাহায্য পাওয়া যায় নি। আবার গত ২৬শে এপ্রিল থেকে কৈলাশহর, কুমারঘাট, বিশালঘর, সাব্রুম, সোনামুড়া সহ বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক ফসলের ক্ষতি হয়েছে। চড়িলামে ৪০-৫০ টির মতো ঘর বাড়ী ভেঙ্গে গেছে, তাদের থাকার কোন ঘর নেই। এছাড়াও তেলিয়ামুড়া মহকুমার কৃষ্ণপুর থেকে চাকমাঘাট পর্যন্ত বিভিন্ন এলাকায় বন্য হাতির উপদ্রপে মানুষের জীবনহানি ঘটছে। মানুষ নিহত হয়েছে, অনেক ঘর বাড়ী ভেঙ্গে দিয়েছে। জেলা প্রশাসনও বন দপ্তর লোক দেখানো অভিযান করেই দায়িত্ব খালাস করছে। এর মাধ্যমে ষ্পষ্ট সরকার আছে বলে মনে হয় না। এই বিষয়গুলি নিয়ে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে ডেপুটেশন দেওয়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান পবিত্র কর। আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সিপিআইএম পশ্চিম জেলা কমিটির সম্পাদক রতন দাস সহ অন্যান্যরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য