Friday, May 31, 2024
বাড়িরাজ্যবৃহস্পতিবার ভোট কর্মীরা ভোট গ্রহণের সরঞ্জাম নিয়ে ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়

বৃহস্পতিবার ভোট কর্মীরা ভোট গ্রহণের সরঞ্জাম নিয়ে ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৫ এপ্রিল : পূর্ব ত্রিপুরা লোকসভা আসনে মোট ভোটার রয়েছে ১৩,৯৬,৭৬১ জন। তারমধ্যে দিব্যাঙ্গ ভোটার রয়েছে ১১,০১২ জন। ৮৫ বছরের অধিক বয়সী ভোটার রয়েছে ৮,৯৪২ জন। সার্ভিস ভোটার রয়েছে ৪,৬৭৮ জন। ইতিমধ্যে ৮৫ বছরের অধিক বয়সী ও দিব্যাঙ্গ ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট গ্রহণ করা হয়েছে।

 শুক্রবার সকাল ৭ টা থেকে শুরু সাধারন ভোটারদের ভোট গ্রহণ। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভোট কর্মীরা ভোট গ্রহণের সরঞ্জাম নিয়ে ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। উত্তর জেলার অন্তর্গত ধর্মনগর মহকুমার চারটি বিধানসভা কেন্দ্র যথাক্রমে ধর্মনগর, বাগবাসা, কদমতলা-কুর্তি ও যুবরাজনগর বিধানসভা কেন্দ্র এলাকায় ভোট গ্রহণের জন্য ভোট কর্মীরা ধর্মনগর বীর বিক্রম ইন্সটিটিউশন থেকে ইভিএম মেশিন সহ ভোট গ্রহণের সরঞ্জাম নিয়ে নিজ নিজ ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। উপস্থিত ছিলেন জেলা নির্বাচনী আধিকারিক দেবপ্রিয় বর্ধন। তিনি জানান ভোট কর্মীদের সাথে নিরাপত্তা রক্ষীরাও ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছে। আমবাসা মহকুমার বিভিন্ন পোলিং স্টেশনে ভোট গ্রহণের কাজে নিযুক্ত কর্মীরা ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে চন্দ্রাই পাড়া দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে নিজ নিজ ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। এ.আর.ও তথা আমবাসার মহকুমা শাসক সঞ্জিত দেববর্মার উপস্থিতিতে ভোট কর্মীরা ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হন। এ.আর.ও সঞ্জিত দেববর্মা জানান দূরবর্তী স্থানে যে সকল পোলিং স্টেশন রয়েছে সেগুলিতে ভোট কর্মীদের আগে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। ৪৭ আমবাসা বিধানসভা এলাকায় ৬৯ টি পোলিং স্টেশন রয়েছে।

মহিলা ভোট কর্মী পরিচালিত ২ টি পোলিং স্টেশন, প্রতিবন্ধী ভোট কর্মী পরিচালিত ১ টি পোলিং স্টেশন এবং যুব ভোট কর্মী পরিচালিত একটি পোলিং স্টেশন রয়েছে। এইদিকে কমলপুর বয়েজ দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে কমলপুর ও সুরমা বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত বিভিন্ন পোলিং স্টেশনের ভোট কর্মীরা ভোট গ্রহণের সরঞ্জাম নিয়ে নিজ নিজ ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। কমলপুর বিধানসভা এলাকায় মোট পোলিং স্টেশন রয়েছে ৫৮টি। অপরদিকে সুরমা বিধানসভা এলাকায় মোট পোলিং স্টেশন রয়েছে ৬০টি। ভোট কর্মীরা জানান সাধারন কোন ধরনের সমস্যা নেই।

কিন্তু মাত্রারিক্ত গরমের কারনে তাদের কিছুটা অসুবিধা হচ্ছে। প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ভোট কর্মীদের সাথে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তারক্ষীরাও ভোট কেন্দ্রে যায়। আমবাসা চন্দ্রাই পাড়া দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয়ে মাঠ থেকে আমবাসা মহকুমার অন্তর্গত ৬৯ পোলিং স্টেশনের জন্য ভোট কর্মীদের সাথে নিরাপত্তা রক্ষিরা ভোট কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। আমবাসা মহকুমা পুলিশ আধিকারিক জানান প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে কেন্দ্রীয় আধাসামরিক বাহিনী। এছাড়াও রিজার্ভে রাখা হয়েছে যথেষ্ট সংখ্যক পুলিশ কর্মী। প্রয়োজনে তাদেরকেও কাজে লাগানো হবে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশিকা মোতাবেক আরক্ষা কর্মীদের ভোট কেন্দ্রে প্রেরন করা হয়েছে। ইতিমধ্যে নিকটবর্তি ভোট কেন্দ্র গুলিতে পৌঁছে গেছে ভোট কর্মীরা।নিরাপত্তারক্ষীরাও ইতিমধ্যে ভোট কেন্দ্রে পৌঁছে গেছে। ভোট গ্রহণকে শান্তিপূর্ণ ভাবে সম্পন্ন করতে সকল ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন। শুক্রবার সকাল ৭ টা থেকে শুরু ভোট গ্রহণ। বিকাল ৫ টা পর্যন্ত চলবে ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া। বিকাল ৫ টার মধ্যে যে সকল ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে লাইনে দাঁড়াবে তাদের ভোট গ্রহণ করা হবে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য