Monday, April 15, 2024
বাড়িরাজ্য২০১৮ সালে সরকার পরিবর্তন হওয়ার পর ত্রিপুরার মানুষ মুক্তির স্বাদ পেয়েছে :...

২০১৮ সালে সরকার পরিবর্তন হওয়ার পর ত্রিপুরার মানুষ মুক্তির স্বাদ পেয়েছে : বিপ্লব

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২ এপ্রিল : বাম আমলে পরিবারের সিদ্ধান্তটা পর্যন্ত পার্টি অফিসের ক্যাডাররা নিতো। ২০১৮ সালে সরকার পরিবর্তন হওয়ার পর ত্রিপুরার মানুষ মুক্তির স্বাদ পেয়েছে। এবং স্বাধীনতার এত বছর পর ২০১৮ সালে ত্রিপুরার মানুষ স্বাধীনতার স্বাদ পেয়েছে। মঙ্গলবার ৬ আগরতলা বিধানসভা কেন্দ্রের ৮ নং ওয়ার্ডের উদ্যোগে আয়োজিত যোগদান সভায় বক্তব্য রেখে এই কথা বলেন লোকসভা নির্বাচনের পশ্চিম ত্রিপুরা আসনের বিজেপি মনোনীত প্রার্থী বিপ্লব কুমার দেব।

নোয়াগাঁও কৃষ্ণনগর স্কুল মাঠে এই যোগদান সভাকে অনুষ্ঠিত হয়। বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মনের খাস তালুকে গিয়ে বিপ্লব কুমারদের আরো বলেন, এখন ৬ আগরতলা বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন বৈঠক করে সিপিআইএম কার্যালয় থেকে বের হয়। আর তারপর কংগ্রেসের পারদর্শী নেতারা সংগ্রাম করতে করতে সিপিআইএমের পার্টি অফিসে ঢুকে গেছে। এ দিন দেখতে হবে বলে কোনদিন ভাবেনি ৬ আগরতলা বিধানসভা কেন্দ্রে মানুষ। তাহলে আগে মানুষের উপর কিভাবে অত্যাচার করার কি প্রয়োজন ছিল বলে প্রশ্ন তুলেন বিপ্লব কুমার দেব। বিপ্লব কুমার দেব আরো বলেন ১৮ বছরের নিচে কোন নাবালিকা যদি ধর্ষণের শিকার হয় তাহলে অভিযুক্তকে কঠোর শাস্তি প্রদান করতে আইন এনেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু কংগ্রেসের বিরোধিতা করেছে। নারীদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে বর্তমান সরকার কাজ করে চলেছে । জম্বু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দিয়েছে সরকার, দেশে প্রথম বিদেশ মন্ত্রী করেছেন সুষমা স্বরাজকে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর তিনি বিদেশ মন্ত্রী হয়েছেন। এবং সবচেয়ে বেশি মহিলা বিধায়িকা ও সাংসদ রয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টিতে। ত্রিপুরা রাজ্যে দুটি আসনের মধ্যে একটিতে মহিলা প্রার্থী হয়েছে, অপরদিকে পশ্চিম ত্রিপুরা আসন থেকে বিপ্লব কুমার দেব প্রার্থী হয়েছেন। অর্থাৎ প্রার্থী নির্বাচনে বিজেপি ৫০% মহিলা সংরক্ষিত রাখা হয়েছে। কংগ্রেস এবং সিপিআইএম দুটি আসনে যে প্রার্থী দিয়েছে তার মধ্যে মহিলা নেই কেউ। রাজ্যের সবচেয়ে বেশি যদি কোন রাজনৈতিক দল মহিলাদের দিয়ে মিছিল করে থাকে তাহলে সেটা হল বামফ্রন্ট। কিন্তু পরিবর্তে তারা মহিলাদের কিছু দেয়নি। মহিলাদের ওপর অত্যাচার রুখতে মহিলাদের স্বনির্ভর এবং স্বরোজগারী করতে হবে বলে জানান বিপ্লব কুমার দেব। সভার শেষে বিপ্লব কুমার দেবের হাত ধরে ১১১ পরিবারের প্রায় সাড়ে চার শতাধিক ভোটার ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেছে। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে দলের স্বাগতা জানান বিপ্লব কুমার দেব। আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর হীরালাল দেবনাথ, কাউন্সিলার শম্পা সেন সরকার সহ অন্যান্যরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য