Sunday, March 3, 2024
বাড়িরাজ্যপশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরা বাদ দিলে আর কোথাও প্রাইভেট টিউশনের পেছনে ছাত্রছাত্রীরা দৌড়ায়...

পশ্চিমবঙ্গ ও ত্রিপুরা বাদ দিলে আর কোথাও প্রাইভেট টিউশনের পেছনে ছাত্রছাত্রীরা দৌড়ায় না : মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২ ফেব্রুয়ারি : প্রাইভেট টিউশন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ মানিক সাহা। শুক্রবার মহারানী তুলসীবতী বালিকা বিদ্যালয়ে ৫০ তম রাজ্যস্তরীয় বাল বৈজ্ঞানিক প্রদর্শনী ২০২৩-২৪ আয়োজনের উদ্বোধন করে মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা বলেন, পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলা অবশ্যই করতে হবে। তাহলে সুস্থ মন এবং সুস্থ দেহ গড়া সম্ভব।

এর পাশাপাশি সমাজের জন্য কিছু করার মানসিকতা গড়ে তুলতে হবে ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে। তাই স্কুলের ক্লাস শেষ হলে শুধু শিক্ষকের বাড়িতে ছুটলেই চলবে না। পশ্চিমবঙ্গ এবং ত্রিপুরা বাদ দিলে আর কোথাও প্রাইভেট টিউশনের পেছনে ছাত্রছাত্রীরা দৌড়ায় না। অথচ সেই সব রাজ্যের ফলাফল ভালো হয়। তারা খেলাধুলার ক্ষেত্রেও ভালো। ত্রিপুরার ছেলেমেয়েরাও খেলাধুলার ক্ষেত্রে অনেক ভালো। কারণ রাজ্যের ছেলে মেয়েদের মধ্যে প্রতিভা রয়েছে। তাই তাদের সমাজের জন্য কিছু করার ক্ষেত্রে মানসিকতা গড়ে তুলতে হবে।

এদিকে শিক্ষক-শিক্ষিকারা গুরুত্ব দিলে অগ্রসর হবে রাজ্য। মুখ্যমন্ত্রী বলেন বিজ্ঞান সমাজের জন্য, রাজ্য সরকার এই বিজ্ঞান কাজে লাগিয়ে তড়িৎ গতিতে কাজ করে চলেছে। পাশাপাশি দুর্নীতিমুক্ত কিভাবে সরকার পরিচালনা করা যায় সেটাও এই বিজ্ঞান দ্বারাই উঠে এসেছে। এমনটাই বললেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা।

 নতুন প্রজন্ম চায় সারা পৃথিবী যাতে তাদের হাতের মুঠোয় হয়। কারণ জ্ঞান ছাড়া কিছুই হবে না। এর জন্য বিজ্ঞান অত্যন্ত প্রয়োজন। আর বিজ্ঞান মানেই যুক্তি। সবকিছু প্রমাণ দিয়ে যুক্তি করে তুলে ধরে বিজ্ঞান। তাই আমরা দিন দিন বিজ্ঞানের দিকে নির্ভরশীল হয়ে পড়ছি। এবং এ বিজ্ঞান সম্পর্কে মানুষ যতটা অবগত হতে পারবে মানুষের জীবনযাত্রার মান ততটাই সহজ সরল হবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের প্রতিটি জেলা থেকে বাছাই করা খুদে বিজ্ঞানীদের ৫ টি করে মডেল রাজ্য স্তরের মেলায় অংশ নিয়েছে। এদিন অনুষ্ঠানে কনাদ নামে স্মরণিকার প্রকাশ করা হয়।রাজ্য স্তরের মেলায় খুদে বিজ্ঞানীরা বিভিন্ন মডেল নিয়ে  হাজির হয়েছেন। শনিবার সমাপ্তি দিনে দেওয়া হবে সেরা মডেল গুলিকে পুরষ্কার। এদিন মুখ্যমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা দপ্তরের অধিকর্তা এন সি শর্মা, এস সি ই আর টির অধিকর্তা সহ অন্যান্যরা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য