Wednesday, October 20, 2021
বাড়িরাজ্য১৪৪ ধারার জনস্বার্থ মামলার পরবর্তী শুনানি ১৫ নভেম্বর

১৪৪ ধারার জনস্বার্থ মামলার পরবর্তী শুনানি ১৫ নভেম্বর

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৭ অক্টোবর : গত ২০ সেপ্টেম্বর আগরতলা পশ্চিম থানা এবং পূর্ব থানাধীন এলাকায় পশ্চিম জেলার জেলাশাসক দেবপ্রিয় বর্ধন একটি নোটিশ মূলে আইনশৃঙ্খলার অবনতির আশঙ্কা সহ কোভিডের তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা দেখিয়ে ১৪৪ ধারা জারি করেছিলেন। এতে শহরে কোনো রকম রাজনৈতিক মিছিল, সভা, সংঘটিত করা যাবে না। তাতে সাধারণ মানুষের মৌলিক অধিকারের উপর আঘাত নেমে এসেছে বলে উচ্চ আদালতে দুটি জনস্বার্থ মামলা হয়।

 মামলাগুলি গত মঙ্গলবার আদালতে উঠলে, আদালত সরকারের কাছে জানতে চায় কেন এবং কিসের ভিত্তিতে ১৪৪ ধারা লাগু হয়েছে আগরতলা শহরে। মঙ্গলবার আদালতে মামলাটি উঠলে সরকারের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের ফাইল এবং এফিডেভিট দেওয়া হয়নি। তাই আদালতের পক্ষ থেকে পুনরায় মামলা শুনানির দিন ধার্য করে আগামী ৭ অক্টোবর। সে মোতাবেক বৃহস্পতিবার মামলাটি আদালতে উঠলে, আদালত খতিয়ে দেখে মহকুমা পুলিশ আধিকারিক পশ্চিম জেলার পুলিশ সুপারকে একটি চিঠি দিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের পদযাত্রা অনুমতির বিষয়ে জানতে চেয়েছিলেন। পরবর্তী সময়ে পশ্চিম জেলা পুলিশ সুপার বিষয়টি জেলাশাসকের উপর চাপিয়ে দেন। জেলাশাসক সেই মোতাবেক আইনশৃঙ্খলার অবনতি হতে পারে দেখিয়ে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছে।

 সেই মোতাবেক দুটি জনস্বার্থ মামলা হয় উচ্চ আদালতে। সরকার পক্ষের আইনজীবী জনস্বার্থ মামলা কারী দুইজনের মামলা খারিজ করে দিতে চেয়েছিলেন। এবং সেই দুজনের মামলা করার অধিকার নেই বলে আদালতে বারবার প্রমাণ করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু প্রধান বিচারপতি বলেছেন দুজনের মামলাটি করার অধিকার রয়েছে। কারণ অযথা ১৪৪ ধারা একপ্রকার নাগরিকদের মৌলিক অধিকারের উপর হস্তক্ষেপ। তাই জনস্বার্থ মামলাটি আরো খতিয়ে দেখা প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করেন উচ্চ আদালতের প্রধান বিচারপতি। তাই সরকারি আইনজীবী বক্তব্য খারিজ করে দিয়ে আগামী ১৫ নভেম্বর পুনরায় শুনানির দিন ধার্য করা হয় এদিন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য