Tuesday, July 16, 2024
বাড়িরাজ্যট্রাফিকের ফরমানের তীব্র নিন্দা বাম শ্রমিক সংগঠনের

ট্রাফিকের ফরমানের তীব্র নিন্দা বাম শ্রমিক সংগঠনের

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২২ আগস্ট : গত কয়েকদিন ধরে ট্রাফিক পরিষেবার নাম করে রাজ্যের বেশ কিছু ব্যস্ততম এলাকায় যান চলাচলের উপর তুঘলকি ফরমান জারি হয়। এর মধ্যে সর্বশেষ ফরমান আগরতলা শহরের পোস্ট অফিস চৌমুহনী-কামান চৌমুহনী পর্যন্ত বিকাল ৫ টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা পর্যন্ত টমটম এবং ই রিক্সা চলাচল করতে পারবে না, এ ধরনের নোটিশের তীব্র নিন্দা জানায়।

মঙ্গলবার ত্রিপুরা ই-রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়ন ও ত্রিপুরা  রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে যৌথভাবে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই কথা বলেন সি আই টি ইউ নেতা অমল চক্রবর্তী। মঙ্গলবার দুই সংগঠনের তরফে যৌথ ভাবে সি আই টি ইউ অফিসে সাংবাদিক সম্মেলন করে তিনি আরো বলেন, ২০১৮ সালের এ সরকার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে পরিবহন ক্ষেত্রে এক নৈরাজ্য নামিয়ে আনা হয়েছে। মানুষ বন্ধন থেকে ঋণ নিয়ে ই রিকশা ক্রয় করছে।

আর সরকার রিক্সা চালাতে দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করলেন তিনি। পাশাপাশি স্ট্যান্ড গুলির কাহিল অবস্থার অভিযোগ তুলে বলেন, মোটর স্ট্যান্ড, চন্দ্রপুর স্ট্যান্ড গুলির দিয়ে গাড়ি চলাচলের ব্যবস্থা নেই। শ্রমিকদের বিশ্রামের জায়গাটুকু নেই এবং বামফ্রন্ট সরকারের আমলে গড়ে উঠা নাগেরজলা আজ পরিচালনার অভাবে ভুগছে। এছাড়াও শহরে পার্কিংয়ের কোন সুবন্দোবস্ত নেই। তিনি বলেন ২০১৮ সালের পরে শ্রমিকরা কাজ হারাচ্ছে। অভাব অনটনে ভুগছে। আরো বলেন সন্ধ্যার পর থেকে শহরে অবৈধভাবে দোকান খুলে বসছে মন্ডল নেতারা। উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সমর চক্রবর্তী, অল ইন্ডিয়া রোড ট্রান্সপোর্ট ফেডারেশনের রাজ্য সভাপতি অমল চক্রবর্তী সহ অন্যান্য নেতৃত্ব। সাংবাদিক সম্মেলনে সমর চক্রবর্তী মন্তব্য করেন, যান চলাচলের উপর এই ধরনের বিধি নিষেধ তুঘলকি সিদ্ধান্ত ছাড়া আর কিছু নয়। বর্তমান সরকারের দৃষ্টিভঙ্গী হল শ্রমিক বিরোধী, গরীব বিরোধী। গরিবের পেটে লাঠি মারা হচ্ছে এই সরকারের কাজ। তিনি অভিযোগ করেন, প্রতিদিন নানা ভাবে এই রাজ্যের শ্রমজীবী অংশের মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য