Wednesday, June 19, 2024
বাড়িরাজ্যউপনির্বাচনে দুটি কেন্দ্রের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করল বামফ্রন্ট

উপনির্বাচনে দুটি কেন্দ্রের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করল বামফ্রন্ট

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৩ আগস্ট : ২০ বক্সনগর এবং ২৩ ধনপুর বিধানসভা কেন্দ্রের উপ নির্বাচনে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করল রাজ্যের বিরোধী দল বামফ্রন্ট। রবিবার দশরথ দেব স্মৃতি ভবনে সাংবাদিক সম্মেলন করে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করলেন বামফ্রন্টের আহ্বায়ক নারায়ন কর। তিনি জানান, দেশে বর্তমানে গণতন্ত্র ও সংবিধান আক্রান্ত। পার্লামেন্টে স্বৈরাচারী কায়দায় আইন পাস করে নির্বাচন কমিশনের মত স্বাধীন সংস্থার অধিকার কেড়ে নিচ্ছে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন সরকার। গোটা দেশে এক ভয়ানক অবস্থা কায়েম করেছে এ সরকারের আমলে।

 কর্পোরেট স্বার্থ রক্ষাকারী বর্তমান সরকারের জন্য মানুষের জীবন আজ দুর্দশা চরম অবস্থায় এসে দাঁড়িয়েছে। এক স্বৈরাচারী শাসনের দিকে ধাবিত হচ্ছে দেশ। একই অবস্থা রাজ্যে তৈরি হয়ে আছে। ধনপুর এবং বক্সনগর বিধানসভা কেন্দ্রে ২০২৩ বিধানসভা নির্বাচনের পর এখন পর্যন্ত দলীয় কার্যালয় খুলতে দেওয়া হচ্ছে না। এ পরিস্থিতিতে দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করতে ২০ বক্সনগর বিধানসভা কেন্দ্রে লড়বেন মিজান হোসেন। প্রয়াত বিধায়ক শামসুল হকের তৃতীয় সন্তান মিজান হোসেন। তিনি সোনামুড়া মহকুমা কমিটির সিপিআইএম নেতা। এবং ২৩ ধনপুর বিধানসভা কেন্দ্রে সিপিআইএম প্রার্থী হচ্ছেন বিগত বিধানসভা নির্বাচনের বিজিত প্রার্থী কৌশিক চন্দ। কৌশিক চন্দ্রের পিতা রাজনৈতিক সন্ত্রাসে বলি হয়েছিলেন। দুজন প্রার্থী এবার শাসকদলের বিরুদ্ধে লড়বে বলে জানান তিনি।

 তিনি আরো বলেন, দুই কেন্দ্রে মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়া হবে আগামী ১৬ আগস্ট। নির্বাচন কমিশনার ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উদ্দেশ্যে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনের মধ্য দিয়ে দাবি জানান নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য। নাগরিকদের ভোট এবং ভোটদান কেন্দ্র সুরক্ষিত রাখতে কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনী দ্বারা গোটা নির্বাচন সম্পন্ন করার জন্য দাবি করা হচ্ছে। তিনি এদিন সাংবাদিক সম্মেলন থেকে বিরোধী দলগুলির উদ্দেশ্যে আহ্বান জানান ভোট বিভাজন না করে বিজেপি পরাস্ত করতে এক মঞ্চে এসে লড়াই করার জন্য। এ সরকার যে প্রতিশ্রুতি দিয়ে ২০১৮ সালে এবং ২০২৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তার ধারে কাছে দিয়েও ঘেষতে পারছে না। পুরোপুরি ভাবে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে সরকার। এ দেশের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে সচিবালয় পর্যন্ত চলছে লুটেরা রাজ। মুখ্যমন্ত্রীর ছাড়া জনপ্রতিনিধিরা চরম দুর্নীতিতে ডুবে গেছে। মানুষের অধিকার পর্যন্ত কেড়ে নিচ্ছে। এবং এ সরকারের জামানায় মন্ডল হল শেষ বিচারের মালিক। আর মন্ডলের নেতৃত্বেই চলছে সবকিছু বলে অভিযোগ করলেন তিনি। আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এই দিন এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সিপিআইএম দলের পরিষদীয় দলে নেতা জিতেন্দ্র চৌধুরী সহ বামফ্রন্টের অন্যান্য শাখা সংগঠন গুলির নেতৃত্ব।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য