Wednesday, June 12, 2024
বাড়িরাজ্যডাইনি সন্দেহে খুন মহিলা, গ্রেফতার ৮

ডাইনি সন্দেহে খুন মহিলা, গ্রেফতার ৮

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ৭ এপ্রিল :  ডাইনি সন্দেহে এক মহিলাকে খুনের অভিযোগ। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় আটজনকে। পুলিশের কাছে অভিযোগ স্বীকার করেছে ধৃতরা। তাদের স্বীকারোক্তি মূলে একটি পরিত্যক্ত শৌচাগারের গর্তের ভেতর থেকে খুন হওয়া মহিলার মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 ঘটনার সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার চাম্পাহাওর থানাধীন পূর্ব বেহালাবাড়ীর লেঙটিবাড়ীতে এই মহিলা খুনের ঘটনাকে সংগঠিত হয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেল আনুমানিক তিনটার নাগাদ লেঙটি বাড়ি এলাকার রঞ্জন কন্দ ও তার স্ত্রী কৌশল্যা ঘাটুয়াল একসাথে বেহালাবাড়ী বাজারের সাপ্তাহিক হাঁটে আসছিলেন। এমন সময় রাস্তা থেকে কয়েকজনে মিলে স্বামীর সামনে থেকেই কৌশল্যা ঘাটুয়ালকে অপহরণ করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ।বিকেল পাঁচটা নাগাদ কেউ একজন ফোন করে চাম্পাহাওর থানার পুলিশকে ঘটনাটি জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে কৌশল্যা ঘাটুয়ালের খোঁজে তল্লাশিতে নামে। মহিলার স্বামী রঞ্জন কন্দের সাথে কথা বলে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে আটজনের নাম ধাম নিশ্চিত হয় পুলিশ।

সন্ধ্যার মধ্যেই পুলিশ অভিযুক্ত আটজনকে জালে তুলতে সক্ষম হয়। পুলিশের কাছে অপহরণ করার অভিযোগ স্বীকার করে ধৃত সকলে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ধৃতরা মহিলাকে ডাইনি সন্দেহে খুনের ঘটনা স্বীকার করে। ধৃতদের স্বীকারোক্তি মূলে পুলিশ লেঙটিবাড়ীর একটি পরিত্যক্ত শৌচাগারের গর্তের ভেতর থেকে কৌশল্যা ঘাটুয়ালের মৃতদেহ উদ্ধার করে।রাত দশটা নাগাদ মৃতদেহটি উদ্ধার করে জেলা হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ। ধৃতরা চাম্পাহাওর থানাধীন গন্ডাবস্তির চরিত্র কন্দ, মিঠুন কন্দ, আকাশ কন্দ, কাজল কন্দ, সঞ্জিত কন্দ, বিমল কন্দ, অজিত কন্দ ও চন্দন তাঁতি। ধৃতরা সকলে খুন হওয়া কৌশল্যা কন্দের নিকটাত্মীয় বলে পুলিশ জানায়। তবে পুলিশের বক্তব্য পারিবারিক ঝামেলার কারণে মহিলাকে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। পুলিশ অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে। ধারণা করা হচ্ছে এই ঘটনার সাথে কোন এক বিষয় জড়িত রয়েছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য