Wednesday, February 8, 2023
বাড়িরাজ্যপ্রদেশ বিজেপির স্পোর্টস সেলের রাজ্য ভিত্তিক সম্মেলন

প্রদেশ বিজেপির স্পোর্টস সেলের রাজ্য ভিত্তিক সম্মেলন

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৬ নভেম্বর : শাসকদল বিজেপির কাছে ২০২৩ -এর বিধানসভা নির্বাচন ২০১৮ -র লড়াইয়ের চেয়ে বেশি কঠিন। বহু প্রতিশ্রুতি গত পৌনে পাঁচ বছরে পালন করতে না পারায় দল থেকে সরে গেছে বহু কর্মী সহ কার্যকর্তা। সকলের একটাই প্রশ্ন প্রতিশ্রুতি পূরণ না হওয়া কিভাবে জনসম্মুখে গিয়ে মুখ দেখাবে তারা। যার ফলে দল থেকে মুখ ঘুরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছে তারা। আর এতে সংগঠন গত পৌনে পাঁচ বছরে দুর্বল হয়েছে।

 আর নির্বাচন ঘনিয়ে আসতে শাসক দল শহরে কোন ধরনের মিছিল মিটিং করতে পারছে না। কর্মী স্বল্পতা ভোগা এ দলটি রাজ্যে সরকার প্রত্যাবর্তন করতে শুধু কৌশলের পর কৌশল গ্রহণ করতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। শনিবার আগরতলার খেজুর বাগানস্থিত শহিদ ভগৎ সিং যুব আবাসে বিজেপি-র ত্রিপুরা প্রদেশের স্পোর্টস সেলের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয় রাজ্য ভিত্তিক কনফারেন্স। এই কনফারেন্সে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা।  এইদিন কনফারেন্স শুরুর পূর্বে শহিদ ভগৎ সিং যুব আবাসের সামনে বিজেপির দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে শহিদ ভগৎ সিং যুব আবাসে প্রদীপ প্রজ্জলনের মধ্যদিয়ে কনফারেন্সের সুচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা।

 কনফারেন্সে আলোচনা করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার মানিক সাহা সরকার ও দলের মধ্যে সমন্বয় সাধনের জন্য স্পোর্টস সেলের নেতৃত্বদের ক্রীড়া দপ্তরের মন্ত্রীর সাথে কথা বলার জন্য বলেন। কেউ কারো কথা বলছে না, এমন ভাববার কোন অবকাশ নেই। দলের বিভিন্ন সেলের সম্মান যেন অক্ষুণ্ণ থাকে সেই বিষয়টি দল যেমন দেখবে তেমনি সরকারও দেখবে। সেই দিশায় সরকার কাজ করছে। বামপন্থী চিন্তা ধারায় বর্তমান সরকার চলে না। বর্তমান সরকার ব্যতিক্রমী। বর্তমান সরকারের কাছে আগে দেশ, তারপর সমাজ, সবশেষে নিজে। পূর্বতন সরকারের সময় নেতাদের নিজস্ব কাজ আগে সম্পাদন করতো। বহু কষ্টের ফলে বর্তমান সরকার প্রতিষ্ঠা হয়েছে। সরকার থাকলে তবেই সেল মজবুত হবে। অন্যথায় অনেক সমস্যার সন্মুখিন হতে হবে। এই বিষয়টি মাথায় রাখে আগে সরকারকে প্রতিষ্ঠা করতে হবে। এইদিনের কনফারেন্সে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রদেশ বিজেপির রাজ্য সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য, বিজেপির উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সাংগঠনিক সাধারন সম্পাদক ফনীন্দ্র নাথ শর্মা, যুব কল্যাণ ও ক্রীড়া দপ্তরের মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী, প্রদেশ বিজেপির স্পোর্টস সেলের পর্যবেক্ষক কমল দে সহ অন্যান্যরা। রাজ্য ভিত্তিক কনফারেন্সে রাজ্যের বিভিন্ন স্থান থেকে স্পোর্টস সেলের সদস্যরা প্রতিনিধি হিসাবে উপস্থিত ছিল।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য