Monday, February 6, 2023
বাড়িরাজ্যবিজন ধরের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রক্তদান শিবির

বিজন ধরের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রক্তদান শিবির

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১১ অক্টোবর : ১১ অক্টোবর তথা মঙ্গলবার বামফ্রন্টের প্রাক্তন আহ্বায়ক বিজন ধরের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে  পরিবারবর্গের উদ্যোগে সি আই টি ইউ রাজ্য দপ্তরে এক স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। স্মরণসভায় উপস্থিত ছিলেন বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার, বিরোধী দলের উপনেতা বাদল চৌধুরী, সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক জিতেন্দ্র চৌধুরী সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। আয়োজিত স্মরণসভায় প্রয়াত বিজন ধরের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানিয়ে শোক জ্ঞাপন করে পরিবার-পরিজনদের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়। উপস্থিত বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, গণআন্দোলন এবং সাংগঠনিক কাজ করার সময় বোঝা যাচ্ছে বিজন ধর অনুপস্থিত। আর এটাই বিজন ধরে কর্মজীবনের সাফল্যের নিদর্শন।

তাই এ ধরনের নেতৃত্ব দের ভুলা যায় না। তিনি দলের কাছে এবং কর্মী সমর্থকদের কাছে চিরদিন স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। এবং আজকের দিনের বেঁচে থাকলে দলের কাজে অনেকটাই সহযোগিতা হতো বলে অভিমত ব্যক্ত করেন বিরোধী দলনেতা মানিক সরকার। সমাজ পরিবর্তনে বিজন ধরের এক তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা ছিল। এবং আজকের দিনে ফ্যাসিস্টবাদী কায়দায় এবং হিংসার উপর ভর করে শাসক দল টিকে থাকতে চাইছে। এই শাসক দল বিজেপি ব্যক্তি স্বাধীনতার উপর এবং গণতন্ত্রের উপর আঘাত নামিয়ে এনেছে। তাই আজকের দিনে বিজন ধরের নীতি আদর্শ গ্রহণ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে জানান সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক জিতেন্দ্র চৌধুরী।

 আজকে যারা রক্তদান শিবিরে অংশগ্রহণ করেছেন তাদের দ্বারা সমাজ পরিবর্তনের এবং উন্নয়নের শক্তি পরিলক্ষিত হয় বলে জানান সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক জিতেন্দ্র চৌধুরী। বিজন ধরের মৃত্যু দলের জন্য বড় ক্ষতি হয়েছে। কিন্তু দল শক্তিশালী করার ক্ষেত্রে বিজনধরের বড় ভূমিকা ছিল। এবং ত্রিপুরায় মার্কসবাদী আন্দোলনে বিজন দলের ছবি আগামী দিনেও থাকবে। এবং তার দেখানো পথে অনুসরণ করে কর্মী সমর্থকরা এগিয়ে যাবে বলে আশা ব্যক্ত করেন বিরোধী দলের উপর নেতা বাদল চৌধুরী। আয়োজিত রক্তদান শিবিরে রক্তদাতাদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য