Wednesday, July 24, 2024
বাড়িখেলানিয়মরক্ষার ম্যাচেও কোনও রকমে জিতল পাকিস্তান

নিয়মরক্ষার ম্যাচেও কোনও রকমে জিতল পাকিস্তান

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১৭ জুন : এই ম্যাচের উপর কিছু নির্ভর করছিল না। কারণ, আগেই চলতি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছিল পাকিস্তান। আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচ ছিল সম্মানরক্ষার। সেই ম্যাচও কোনও রকমে জিতল পাকিস্তান। প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১০৬ রান করে আয়ারল্যান্ড। ১০৭ রান করতে ১৯.৫ ওভার লাগল পাকিস্তানের। উইকেট পড়ল ৭টি। দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়লেন অধিনায়ক বাবর আজ়ম। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে রেকর্ড করলেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত ফ্লরিডার মাঠে কোনও ম্যাচ হল। টস জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেন বাবর। আরও এক বার ভাল বল করলেন পাকিস্তানের বোলারেরা। নতুন বল ভাল কাজে লাগালেন শাহিন শাহ আফ্রিদি ও মহম্মদ আমির। পাওয়ার প্লে-র মধ্যে ৫ উইকেট পড়ে যায় আয়ারল্যান্ডের। প্রথম পাঁচ ব্যাটারের কেউ দু’অঙ্কে যেতে পারেননি। দু’জন শূন্য রানে ফেরেন।

৩২ রানে ৬ উইকেট পড়ার পরে জুটি বাঁধেন গ্যারেথ ডেলানি ও মার্ক আডেইর। তাঁরা দলের রানকে সম্মানজনক অবস্থায় নিয়ে যান। ডেলানি করেন ৩১ রান। মাঝের ওভারে পাক বোলারদের মধ্যে সফল ইমাদ ওয়াসিম। একটা সময় মনে হচ্ছিল, ১০০ রানও করতে পারবে না আয়ারল্যান্ড। শেষ দিকে জোশুয়া লিটল ২২ রান করে দলের রান ১০০ পার করান। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে ১০৬ রানে শেষ হয় আয়ারল্যান্ডের ইনিংস।

পাকিস্তানের বোলারদের মধ্যে শাহিন ২২ রান দিয়ে ৩ উইকেট ও ইমাদ ওয়াসিম ৮ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন। আমির ১১ রান দিয়ে ২ ও হ্যারিস রউফ ১৭ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন।

রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা খারাপ করেনি পাকিস্তান। ভাল খেলছিলেন সাইম আয়ুব। ১৭ রান করে আউট হন তিনি। মহম্মদ রিজ়ওয়ানও করেন ১৭ রান। ২ উইকেটে ৫২ রান করে পাকিস্তান। সেখান থেকে ধস নামে তাদের ব্যাটিংয়ে। ১০ রানে ৪ উইকেট হারায় তারা।

৬ উইকেট পড়ার পরে বাবরের সঙ্গে জুটি বাঁধেন চলতি বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা আব্বাস আফ্রিদি। দু’জনের ৩৩ রানের জুটি পাকিস্তানকে জয়ের কাছে নিয়ে যায়। আব্বাস করেন ১৭ রান। শেষ দিকে নেমে ৫ বলে ১৩ রানের ইনিংস খেলে সাত বল বাকি থাকতে পাকিস্তানকে ৩ উইকেটে জেতান শাহিন। বাবর ৩২ রানে অপরাজিত থাকেন।

অধিনায়ক হিসাবে বিশ্বকাপে ব্যর্থ হলেও রেকর্ড করলেন বাবর। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অধিনায়ক হিসাবে সর্বাধিক রানের মালিক হলেন তিনি। ১৭টি ইনিংসে বাবরের রান ৫৪৯। মহেন্দ্র সিংহ ধোনির রেকর্ড ভাঙলেন তিনি। ২৯টি ইনিংসে ধোনির রান ৫২৯।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য