Wednesday, June 19, 2024
বাড়িখেলা৩৩ বছরের অপেক্ষা, নাপোলির শিরোপা সমর্থকদেরই

৩৩ বছরের অপেক্ষা, নাপোলির শিরোপা সমর্থকদেরই

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,,৫ মে: ৩৩ বছর পর নাপোলি ইতালিয়ান সিরি ‘আ’র শিরোপা জিতল। অনন্য অসাধারণ এক মুহূর্ত সমর্থকদের জন্য। বিরলও বটে। ইতালির নেপলস শহরের এই ক্লাব সবশেষ লিগ শিরোপা জিতেছিল ১৯৯০ সালে। মাঝখানে একাধিক প্রজন্ম নাপোলিকে সমর্থন করে গেছে কোনো সাফল্য ছাড়াই। একাধিক প্রজন্ম এই ক্লাবকে কোনো দিন লিগ শিরোপা জিততে দেখেনি। সমর্থকদের মধ্যে অনেকেই আছেন ১৯৮৭ কিংবা ১৯৯০ সালে প্রিয় ক্লাবকে শিরোপা জিততে দেখার পর আরেকটি শিরোপার অপেক্ষায় থাকতে থাকতে দুনিয়া ছেড়েই চলে গেছেন। নাপোলির আরও একটি সিরি ‘আ’ শিরোপা তাই সমর্থকদের জন্য দারুণ আবেগের।গত রাতে উদিনেসের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে নাপোলির লিগ শিরোপা নিশ্চিত হওয়ার পরপরই কোচ লুসিয়ানো স্পালেত্তি কান্নায় ভেঙে পড়েন। সেই কান্নায় লুকিয়ে ছিল নাপোলি সমর্থকদের জন্য তাঁর অনুভূতি। তিনি ৩৩ বছর অপেক্ষার পর জেতা এই শিরোপা উৎসর্গ করেছেন নাপোলি সমর্থকদেরই। তিন দশকেরও বেশি সময়ের এই অপেক্ষা সত্যিকারের সমর্থকেরাই করেন। তাঁদের আবেগের প্রতি নাপোলি কোচের কৃতজ্ঞতা অনেক, ‘সমর্থকদের হাসতে দেখা, লিগ জয়ের আনন্দ করতে দেখা আমার কাছে সবচেয়ে বড় আবেগের নাম। তাঁরাই তাঁদের আবেগ-আনন্দ ছড়িয়ে দিয়েছেন সর্বত্র।’

৩৩ বছর পর সিরি ‘আ’ নেপলসে। আবেগের কাছে নিজেকে সঁপে দিলেন কোচ স্পালেত্তিছবি: রয়টার্স

ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যম ডিএজেএনকে স্পালেত্তি বলেছেন, ‘সমর্থকদের মধ্যে অনেকেই আছেন যাঁরা এই জয়ের মাধ্যমে নিজেদের জীবনের কঠিন সময়গুলোকে পেছনে ফেলবেন। তাঁরা এই মুহূর্ত বাকি জীবন মনে রাখবেন। এই মানুষগুলোর জন্য এই আনন্দের পুরোটাই প্রাপ্য।’ম্যারাডোনা ও মাটির দলায় নাপোলির উৎসব৩৩ বছর পর নাপোলির ‘কথা রাখার’ উৎসবম্যারাডোনার স্মৃতি ফিরিয়ে ৩৩ বছর পর লিগ চ্যাম্পিয়ন নাপোলিনাপোলিকে লিগ জেতানোর পাশাপাশি ইতালিয়ান লিগে একটি ব্যক্তিগত রেকর্ডও করেছেন স্পালেত্তি। সেটি হচ্ছে ৬৪ বছর বয়সে লিগ জেতা। নাপোলি কোচ হচ্ছেন স্কুদেত্তো (লিগ শিরোপা) জেতা সবচেয়ে বেশি বয়সী কোচ। এর আগে রাফায়েল বেনিতেজ, কার্লো আনচেলত্তি, মরিসিও সারি, জেনারো গাত্তুসোরা নাপোলির কোচ ছিলেন। স্পালেত্তি সাফল্য পেলেন দায়িত্ব নেওয়ার তিন মৌসুম পর।

নাপোলি কোচ স্পালেত্তি শিরোপা উৎসর্গ করলেন ৩৩ বছর ধরে অপেক্ষায় থাকা সমর্থকদেরছবি: রয়টার্স

এ ব্যাপারে তাঁর মন্তব্য, ‘শিরোপা জয়ের চাপ ছিল। এই দলকে আগে বেনিতেজ, আনচেলত্তি, সারি, গাত্তুসোরা কোচিং করিয়েছেন। আমি কোচ হলাম কেন? আমি কোচ হয়ে তো বলতে পারি না, যে অবনমন থেকে বাঁচার লড়াই করব। আমাদের জিততেই হতো।’নাপোলির সবশেষ দুটি শিরোপা এসেছিল ১৯৮৭ ও ১৯৯০ সালে। তিন দশক আগের ওই দুই শিরোপার সঙ্গে জড়িয়ে আছে ম্যারাডোনার নাম। নাপোলির তৃতীয় শিরোপা জয়ের রাতে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তিকে স্মরণ করেছেন স্পালেত্তি, ‘এই দলে অনেক ভালো ভালো কোচ এসেছেন, গেছেন। এই ক্লাবে ডিয়েগো ম্যারাডোনা খেলেছেন। এই সাফল্যে তাঁকে খুব মনে পড়ছে।’স্পালেত্তির কথাই ঠিক, এ আনন্দে ম্যারাডোনাকে যে খুব করেই মনে পড়ছে নাপোলি সমর্থকদের।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য