Wednesday, February 8, 2023
বাড়িখেলাপেলের জন্য সিংহাসন

পেলের জন্য সিংহাসন

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,১১ জানুয়ারি: কিংবদন্তি চলে গেছেন গত ২৯ ডিসেম্বর। সেই শোক এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি ব্রাজিল। দেশে দেশে চলছে শ্রদ্ধা জানানোর পর্বও। কেপভার্দে ও গিনি বিসাউ তাঁর নামে স্টেডিয়ামের নাম দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মেক্সিকান ফুটবলও বসে নেই। সেখানকার ক্লাব পাচুকা অভিনব পদ্ধতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছে পেলেকে। তিনবার বিশ্বকাপজয়ী প্রয়াত কিংবদন্তির জন্য স্থায়ী সিংহাসন বানিয়েছে পাচুকা। সোমবার সেই সিংহাসন উন্মোচন করা হয়।

পাচুকা মেক্সিকোর শীর্ষ লিগের দল। পুয়েবলার বিপক্ষে সোমবার ৫-১ গোলে জয়ের আগে পাচুকা সভাপতি হেসাস মার্তিনেজ এই সিংহাসন উন্মোচন করেন। পাচুকার মাঠ এস্তাদিও হিদালগো স্টেডিয়ামে ডিরেক্টরস বক্সের নিচেই পেলের জন্য এই সিংহাসন বসানো হয়। ব্রাজিল কিংবদন্তির সইও আছে সিংহাসনে। পাচুকার টুইটে সিংহাসনের ছবি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘সর্বকালের সেরা, রাজার সিংহাসনের জায়গা।’পাচুকার খেলোয়াড়েরা মাঠে নেমেছিলেন ব্রাজিলের জার্সি পরে। স্টেডিয়ামের আলোও নিভিয়ে ফেলা হয়েছিল কিছুক্ষণের জন্য। তখন স্টেডিয়ামের ওপর ড্রোনের সাহায্য নিয়ে পেলের ক্যারিয়ার ডিসপ্লে করা হয়। সেটি ম্যাচ শুরুর প্রায় ঘণ্টাখানেক আগে। খেলোয়াড় থেকে দর্শক, পেলেকে শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতাও পালন করেন।

ব্রাজিলের জার্সি পরে মাঠে নেমেছিলেন পাচুকার খেলোয়াড়েরাছবি: পাচুকা টুইটার অ্যাকাউন্ট

‘ও রেই’, অর্থাৎ ‘রাজা’ তকমা পাওয়া পেলেকে স্মরণ করে পাচুকা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও ছেড়েছে, যেখানে বলা হয়, ‘আমাদের প্রতিষ্ঠানের প্রতিটি জায়গা আপনি আলোকিত করেছেন, জাদু রেখে গেছেন।’ ২০০১ সালে পেলে পাচুকা ক্লাব দেখতে গিয়েছিলেন। তখন ক্লাবটির একটি মাঠ তাঁর নামে নামকরণ করা হয়। তিন বছর পর হিদালগো স্টেডিয়াম আবার খুলে দেওয়ার সময়ও পাচুকায় গিয়েছিলেন পেলে।পাচুকার খেলোয়াড়েরা ১৯৭০ বিশ্বকাপ ব্রাজিল দল যে মডেলের জার্সি পরে মাঠে নেমেছিলেন, সেই মডেলের জার্সি পরে মাঠে নামেন। পেলে সেই বিশ্বকাপে ১০ নম্বর জার্সি পরে খেলেন। পাচুকার সবার গায়েই ছিল পেলের সেই ১০ নম্বর জার্সি। তবে পাচুকার স্টেডিয়ামে খুব বেশি দর্শক ছিল না। পেলেকে শ্রদ্ধা জানাতে সবাইকে আগেভাগে স্টেডিয়ামে আসার অনুরোধ করা হলেও তেমন সাড়া মেলেনি।গত সপ্তাহে পেলের শেষকৃত্যে উপস্থিত হয়ে ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো বলেছিলেন, পেলের নামে অন্তত একটি স্টেডিয়ামের জন্য পৃথিবীর সব দেশকে তিনি অনুরোধ করবেন। এরপর কেপভার্দে, কলম্বিয়া, পূর্ব তিমুর ও গিনি বিসাউ কিংবদন্তির নামে স্টেডিয়ামের নামকরণ করার সিদ্ধান্ত নেয়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য