Wednesday, February 8, 2023
বাড়িখেলালেস্টার ডিফেন্ডারের জোড়া আত্মঘাতী গোলে লিভারপুলের জয়ের হাসি

লেস্টার ডিফেন্ডারের জোড়া আত্মঘাতী গোলে লিভারপুলের জয়ের হাসি

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক,৩১ ডিসেম্বর: প্রতিপক্ষের রক্ষণে একের পর এক আক্রমণ করে গেল লিভারপুল। দারুণ সব সুযোগও মিলল। কিন্তু সালাহ-নুনেসরা একবারও জালে বল পাঠাতে পারলেন না। তবুও শেষ পর্যন্ত জয়ী দল তারাই! লেস্টার সিটির ডিফেন্ডার ভাউট ফাস যে দু-দুবার নিজেদের জালেই বল জড়ালেন।অ্যানফিল্ডে শুরতে এগিয়ে গিয়েও তাই শেষ পর্যন্ত লেস্টার সিটির সঙ্গীএকরাশ হতাশা। শুক্রবার প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেছে লিভারপুল।আসরে বাজে শুরুর পর ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াইয়ে এই নিয়ে টানা চার ম্যাচ জিতল লিভারপুল।বৃহস্পতিবার না ফেরার দেশে পাড়ি জমানো কিংবদন্তি পেলের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে শুরু হয় মাঠের লড়াই। ম্যাচ শুরুর চতুর্থ মিনিটেই দারুণ নৈপুণ্যে লেস্টারকে এগিয়ে নেন কির্নান ডিউজবুরি-হল। মাঝমাঠে সতীর্থের পাস ধরে ডিফেন্ডারদের পেছনে ফেলে ডি-বক্সে ঢুকে ওয়ান-অন-ওয়ানে পোস্ট ঘেঁষে বল জালে পাঠান ইংলিশ মিডফিল্ডার।

শুরুর ধাক্কা সামলে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে আক্রমণ করতে থাকে লিভারপুল। এর মাঝেই পঞ্চদশ মিনিটে একটা ধাক্কা খায় লেস্টার; চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন ফরোয়ার্ড পাস্তন দাকা, বদলি নামেন অভিজ্ঞ জেমি ভার্ডি।২৭তম মিনিটে মোহামেদ সালাহ জালে বল পাঠান, তবে অফসাইডের পতাকা তোলেন লাইন্সম্যান। ১০ মিনিট পর প্রতিপক্ষের দুর্ভাগ্যে গোল পেয়ে যায় লিভারপুল।ডান দিক থেকে ট্রেন্ট অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ডের কোনাকুনি শট ঠেকাতে পা বাড়ান ডিফেন্ডার ফাস। কিন্তু বল তার পায়ের উপরিভাগে লেগে গোলরক্ষকের ওপর দিয়ে দূরের পোস্ট দিয়ে জালে জড়ায়।ওই গোলে ভাগ্যকে দুষলেও সাত মিনিট পর যে ভুলটা করেন, তার দায় এড়াতে পারবেন না ফাস। নুনেসের চিপ শট আগুয়ান গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে বাধা পায় পোস্টে। কিন্তু ছুটে গিয়ে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে জালে ঠেলে দেন কাতার বিশ্বকাপের বেলজিয়াম স্কোয়াডের সেন্টার-ব্যাক ফাস। দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম ১০ মিনিটে ভালো দুটি সুযোগ পায় লিভারপুল; কিন্তু জর্ডান হেন্ডারসনের শট পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যাওয়ার পর সালাহর শটও হয় লক্ষ্যভ্রষ্ট। ৬৫তম মিনিটে নুনেসও উড়িয়ে মেরে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ নষ্ট করেন।এরপরও চলতে থাকে তাদের সুযোগ নষ্টের মিছিল। ৭২তম দারুণ পজিশনে বল মেরে গোলরক্ষক বরাবর শট নেন সালাহ, ৬ মিনিট পর নুনেস আবার উড়িয়ে মারলে স্কোরলাইন রয়ে যায় অপরিবর্তিত।১৬ ম্যাচে আট জয় ও চার ড্রয়ে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে লিভারপুল। তাদের চেয়ে ১ পয়েন্ট বেশি নিয়ে পাঁচে এক ম্যাচ কম খেলা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের।১৫ ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আর্সেনাল। ৫ পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে ম্যানচেস্টার সিটি।একটি করে ম্যাচ বেশি খেলা নিউক্যাসল ইউনাইটেড ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আর টটেনহ্যাম হটস্পার ৩০ পয়েন্ট নিয়ে আছে চার নম্বরে।১৭ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে ১৩ নম্বরে অবস্থান সাবেক লিগ চ্যাম্পিয়ন লেস্টার সিটির।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য