Saturday, December 3, 2022
বাড়িখেলাভুবনেশ্বরে ভরসা রাখছেন রোহিত

ভুবনেশ্বরে ভরসা রাখছেন রোহিত

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক, আগরতলা, ২৬ সেপ্টেম্বর: গত এশিয়া কাপ থেকেই শেষ সময়ে দেদার রান গুনছেন ভুবনেশ্বর। তাতে ভুগতে হচ্ছে ভারতকে। দুবাইয়ে ওই আসরে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচে ১৯তম ওভারে বোলিংয়ে এসে ১৯ ও ১৪ রান দেন তিনি। তাতে ত্বরান্বিত হয় দলের পরাজয়। পরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ম্যাচেও ১৯তম ওভারে ১৬ রান দিয়ে ম্যাচের উত্তেজনা একরকম শেষ করে দেন ভুবনেশ্বর। সেদিন তিনি খরুচে ছিলেন নতুন বলেও। ক্যারিয়ারের সবচেয়ে খরুচে বোলিংয়ে ৪ ওভারে রান দেন ৫২। দ্বিতীয় ম্যাচে তাকে বিশ্রাম দেওয়া হয়। সিরিজের ম্যাচে ফিরেও একই চিত্র। হায়দরাবাতে রোববার ম্যাচের প্রথম ওভারেই তার বলে চার-ছক্কা মারেন ক্যামেরন গ্রিন। পরে পঞ্চম ওভারে আক্রমণে ফিরে তিনি গ্রিনের উইকেট নিতে পারেন বটে। তবে শেষ দিকে আবার খেই হারান। এবার ১৯তম নয়, তাকে ১৮তম ওভারে আক্রমণে আনেন রোহিত। সেই ওভারে টিম ডেভিড মারেন দুই ছক্কা এক চার। ওভার থেকে আসে ২১ রান! ৩ ওভারে ৩৯ রান দেওয়ার পর তাকে আরেক ওভার দেননি অধিনায়ক।

 তবে মাঠের বাইরে রোহিত পাশেই থাকলেন ভুবনেশ্বরের। “তাকে ওই সুযোগটুকু দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। তার মতো একজন বোলার যখন দলে আছে, তার মান এতটা ভালো… সত্যি বলতে, বছরের পর বছর ধরে আমরা দেখেছি যে খারাপ দিনের চেয়ে তার ভালো দিনই বেশি এসেছে। হ্যাঁ, সম্প্রতি সে আমাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফর্ম করতে পারছে না, তবে সব বোলারের ক্ষেত্রে এটা হতে পারে।”“প্রতিপক্ষ দলগুলির দিকেও তাকাতে হবে। আর ডেথ ওভারে বোলিং করা কখনোই সহজ নয়। আমরা কিছু পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছি। আশা করি শেষের ওভারগুলোয় আরও বিকল্প তাকে দিতে পারব আমরা এবং সে আগের মতো ভালো হয়ে উঠবে।” ভুবনেশ্বরের ছন্দে ফেরা ভারতীয় দলের জন্যও খুব জরুরি বলে মনে করেন অধিনায়ক। “আমার মনে হয় না তার আত্মবিশ্বাসের কমতি আছে। যখনই তার সঙ্গে কথা বলি, আত্মবিশ্বাস দেখতে পাই। বাজে ম্যাচ যেতেই পারে। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানো গুরুত্বপূর্ণ। আমরা চাই, যত দ্রুত সম্ভব সে যেন নিজেকে ফিরে পায়। কারণ, অতীতেও সে এই কঠিন ওভারগুলোয় আমাদের হয়ে দারুণ বোলিং করেছে।”

 

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য