Friday, May 31, 2024
বাড়িজাতীয়কংগ্রেস নেতার মেয়েকে কোপের পর কোপ মেরে খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য কর্নাটকে

কংগ্রেস নেতার মেয়েকে কোপের পর কোপ মেরে খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য কর্নাটকে

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ২০ এপ্রিল : কংগ্রেস নেতার মেয়েকে কোপের পর কোপ মেরে খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য কর্নাটকে। অভিযুক্ত যুবকের সঙ্গে ওই যুবতীর সম্পর্ক ছিল বলে গুঞ্জন। কিন্তু সম্প্রতি তিনি অভিযুক্তকে এড়িয়ে চলছিলেন বলে অভিযোগ। এই ঘটনাকে ‘লাভ জেহাদ’ বলে দাবি কন্যাহারা বাবার। অভিযোগ উড়িয়ে দিচ্ছে হাত শিবির। সব মিলিয়ে ২৩ বছরের নেহা হিরেমথের মৃত্যু ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে। অভিযোগ ওঠার পর সরব হয়েছে বিজেপিও। যদিও দক্ষিণী রাজ্যের প্রশাসন এই খুনে ‘লাভ জেহাদে’র তত্ত্ব মানতে নারাজ।


ঠিক কী অভিযোগ? জানা যাচ্ছে, এমসিএ প্রথম বর্ষের পড়ুয়া নেহার প্রাক্তন সহপাঠী ছিলেন ফায়াজ খোন্দুনায়েক। অভিযুক্তের দাবি, কেবলই সহপাঠীই নয়, তাঁদের মধ্য়ে প্রেমের সম্পর্কও ছিল। কিন্তু পরবর্তী সময়ে ফায়াজকে এড়াতে শুরু করেন নেহা। এর পরই আক্রোশ থেকে প্রাক্তন বান্ধবীকে আক্রমণ করেন তিনি। তাঁর শরীরে সাতটি কোপ মারেন ছুরির। মৃত্যু হয় নেহার। পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে ফায়াজকে।
এই ঘটনায় ‘লাভ জেহাদে’র অভিযোগ তুলেছেন নেহার বাবা কংগ্রেস নেতা নিরঞ্জন হিরেমথ। তাঁর দাবি, ফাঁদে ফেলা হয়েছিল ওই যুবতীকে। সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় নিরঞ্জন বলেছেন, ”ওই গ্যাং বহুদিন ধরেই চক্রান্ত করছে। ওরা চেয়েছিল আমার মেয়েকে ফাঁদে ফেলতে কিংবা খুন করতে। আড়ালে শাসাচ্ছিল নিয়মিত। কিন্তু আমার মেয়ে সেসবে পাত্তা দেয়নি।”


এদিকে শাসক দল ‘লাভ জেহাদে’র অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে। তাদের দাবি, ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকেই ওই অপরাধ করেছে অভিযুক্ত। যে প্রসঙ্গে নিরঞ্জন ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন, ”এই রাজ্য এবং গোটা দেশ দেখছে আমার মেয়ের সঙ্গে কী হয়েছে। ওরা এটাকে ব্যক্তিগত বলছে। এতে ব্যক্তিগতর কী আছে? ওরা কি আমার আত্মীয়?”


এই ইস্যুকে কাজে লাগিয়ে কংগ্রেসকে বিপাকে ফেলতে চাইছে বিজেপি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও রাজ্যের ধারওয়াড়ের সাংসদ প্রহ্লাদ যোশির সন্দেহ, এটা ‘লাভ জেহাদে’র ঘটনা। এদিকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মীনাক্ষী লেখি কর্নাটক সরকারকে কাঠগড়ায় তুলে বলেছেন, রাজ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির ক্রমাবনতিতে অস্বস্তিতে জনতা। তাঁর কথায়, কংগ্রেসের ‘সি’ এখন ‘করাপশন, ক্রিমিনালিটি অ্যান্ড কমিউনাল ভায়োলেন্স’-এর প্রতীক হয়ে উঠেছে। যদিও কর্নাটকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জি পরমেশ্বর জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে এই মামলার সঙ্গে ‘লাভ জেহাদে’র কোনও সম্পর্ক নেই।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য