Tuesday, February 27, 2024
বাড়িজাতীয়শনিবার কি রাজ্যসভায় পেশ হবে অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিল?

শনিবার কি রাজ্যসভায় পেশ হবে অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিল?

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। ৯ ফেব্রুয়ারি : ৯ ফেব্রুয়ারিই শেষ হওয়ার কথা ছিল বাজেট অধিবেশন। কিন্তু রাজ্যসভার অধিবেশন শুক্রবারই শেষ হচ্ছে না। তা আরও একদিন সম্প্রসারিত হয়েছে। এবং শনিবার রাজ্যসভার সমস্ত বিজেপি সাংসদকে অধিবেশনের সময় উপস্থিত থাকার নির্দেশ দিয়েছে পদ্ম শিবির। সেই নোটিস ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে।

কী নিয়ে জল্পনা? আসলে যে নোটিস পাঠানো হয়ে তার বয়ান নিয়েই শুরু হয়েছে গুঞ্জন। সেখানে লেখা হয়েছে- ‘বিজেপির সব রাজ্যসভার সাংসদদের জানানো হয়েছে যে রাজ্যসভায় অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা করা হবে শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪। বিজেপির সমস্ত রাজ্যসভার সদস্যের কাছে নিবেদন, শনিবার সারাদিন সম্পূর্ণ সময় অবশ্যই যেন উপস্থিত থেকে সরকারের প্রতি সমর্থন জানান।’


এই নোটিসে যে ‘অতি গুরুত্বপূর্ণ’ বিষয়ের কথা বলা হচ্ছে তা কি অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিল ? তেমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। কেননা বিজেপি প্রথম থেকেই যেসব বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তার মধ্যে তিন তালাকের অপসারণ, রামমন্দির ইত্যাদি আজ বাস্তবায়িত। বাকি রয়েছে কেবল অভিন্ন দেওয়ানি বিধি লাগু করা। তাই সেদিকেই নজর বিশেষজ্ঞদের। এক দেশ এক আইনের পথে এগতে নয়া পদক্ষেপ কি করা হবে শনিবার? কিন্তু সেক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠছে, কেন রাজ্যসভায় ওই বিল পেশ করতে পারে বিজেপি? আসলে লোকসভায় কোনও বিল পেশ করার পর যখন লোকসভা ভেঙে যায়, তখন নির্বাচনের পর নতুন করে লোকসভা গঠিত হলে আগের বিলগুলি আর টেবিলে থাকে না। ফের তা পেশ করতে হয়। অন্যদিকে, রাজ্যসভার ক্ষেত্রে নিয়মটা অন্য। নির্বাচনের পরে ফের বিজেপি ক্ষমতায় এলে আর তা নতুন করে পেশ করতে হবে না। তাই মনে করা হচ্ছে,রাজ্যসভায় বিলটি পেশ করে হয়তো স্ট্যান্ডিং কমিটির কাছে তা পর্যালোচনার জন্য পাঠিয়ে রাখা হতে পারে। তার পর নতুন সরকার গঠিত হলে ফের তা নিয়ে প্রথম থেকেই আলোচনা শুরু করে দিতে পারে বিজেপি। এমনিতে আগামী নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী মোদি। এই পরিস্থিতিতে পরের সরকার গঠিত হলেই নতুন নতুন বিল পাশ করানোর কাজ শুরু করে দিতে চায় বিজেপি। আর সেদিকে তাকিয়েই এই নোটিশ, এমনই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।


প্রসঙ্গত, গত বুধবারই দেশের প্রথম রাজ্য হিসাবে অভিন্ন দেওয়ানি বিধি বিল পাশ হয়েছে উত্তরাখণ্ড বিধানসভায়। একে একে সমস্ত বিজেপি শাসিত রাজ্যেই তা পেশ করা হবে বলে শোনা যাচ্ছে। এই অবস্থায় রাজ্যসভাতেও এই বিল পেশ করা হয় কিনা, সেদিকেই আপাতত নজর রয়েছে সকলের। তুঙ্গে জল্পনা।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য