Saturday, July 2, 2022
বাড়িবিশ্ব সংবাদপশ্চিমা মিত্রদের বিভক্ত করতে চাইছে রাশিয়া: পোল্যান্ড

পশ্চিমা মিত্রদের বিভক্ত করতে চাইছে রাশিয়া: পোল্যান্ড

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২৭ এপ্রিল।  রাশিয়ার জ্বালানি কোম্পানি গ্যাজপ্রম পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় গ্যাস রপ্তানি বন্ধ করার পর পোল্যান্ড এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে।পোল্যান্ডের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিবিসি-কে বলেছেন, রাশিয়া গ্যাসকে কাজে লাগিয়ে পশ্চিমা মিত্রদের মধ্যে বিভক্তি সৃষ্টি করতে চাইছে।

ওয়ারশ’র নেতারা বলছেন, মস্কোর পদক্ষেপ ‘ব্ল্যকমেইলের’ সামিল। ওদিকে, ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট ভন ডার লিয়েনও রাশিয়ার সমালোচনা করেছেন।তিনি বলেন, রাশিয়ার পদক্ষেপই প্রমাণ করছে যে, জ্বালানি সরবরাহকারী দেশ হিসাবে তারা ‘নির্ভরযোগ্য’ না। ইউরোপে রাশিয়ার জীবাশ্ম জ্বালানির যুগ ফুরিয়ে আসছে বলেও মন্তব্য করেন ভন ডার লিয়েন।তবে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ এই সমালোচনা উড়িয়ে দিয়ে মস্কোকে নির্ভরযোগ্য জ্বালানি অংশীদার বলে দাবি করেছেন।

রুবলে মূল্য পরিশোধ করতে অস্বীকৃতি জানানোয় বুলগেরিয়ার কোম্পানি বুলগারগাজ ও পোল্যান্ডের কোম্পানি পিজিএনআইজিকে গ্যাস সরবরাহ করা পুরোপুরি বন্ধ করে দিয়েছে রাশিয়ার গ্যাজপ্রম।গত ২৩ মার্চ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ‘অবন্ধুসুলভ’ দেশগুলোকে আমদানি করা গ্যাসের মূল্য অবশ্যই রুবলে পরিশোধ করতে হবে, অন্যথায় বিদ্যমান জ্বালানি চুক্তি স্থগিত থাকবে বলে জানিয়েছিলেন।বুধবার এক বিবৃতি দিয়ে রাশিয়ার জ্বালানি কোম্পানি গ্যাজপ্রম জানিয়েছে, পুতিনের জারি করা ওই ডিক্রি অনুযায়ী তারা পোল্যান্ড এবং বুলগেরিয়ায় গ্যাস সরবরাহ পুরোপুরি বন্ধ করে দিয়েছে।

বুলগেরিয়া ও পোল্যান্ড ইউরোপে রাশিয়ার গ্যাস সরবরাহের ট্র্যানজিট রাষ্ট্র হওয়ায় তৃতীয় দেশের উদ্দেশ্যে পাঠানো গ্যাস কোনও অনুমতি ছাড়া উত্তোলন করা হলে সেক্ষেত্রে যে পরিমাণ গ্যাস উত্তোলন করা হবে ট্র্যানজিট সাপ্লাই থেকে তা কমিয়ে দেওয়া হবে বলেও বিবৃতিতে সতর্ক করেছে গ্যাজপ্রম।

পোল্যান্ডের রাষ্ট্রীয় গ্যাস কোম্পানি পিজিএনআইজি নিশ্চিত করে জানিয়েছে যে, গ্যাজপ্রম তাদের দেশে সরবরাহ বন্ধ করেছে।তবে এজন্য ক্ষতিপূরণ দাবি করার অধিকার পিজিএনআইজি’র আছে এবং তা করার জন্য চুক্তিভিত্তিক ও আইনি সব ধরনের পন্থাই নেওয়া হবে বলেও সতর্ক করেছে কোম্পানিটি ।গ্যাজপ্রমের বিরুদ্ধে ‘সমুচিত আইনি ব্যবস্থা’ নেওয়া হবে বলে শাসিয়েছেন পোলিশ প্রেসিডেন্টও।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য