Wednesday, July 24, 2024
বাড়িবিশ্ব সংবাদব্রাজিলের হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন নোয়াম চমস্কি

ব্রাজিলের হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন নোয়াম চমস্কি

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক, ১৯ জুন: মার্কিন ভাষাবিদ ও অধিকারকর্মী নোয়াম চমস্কি গতকাল মঙ্গলবার ব্রাজিলের সাও পাওলোর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন। পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বাড়িতেই তাঁর চিকিৎসা চলবে।২০২৩ সালের জুনে যুক্তরাষ্ট্রে বসে একটি বড় ধরনের স্ট্রোকে আক্রান্ত হন চমস্কি। অবস্থা কিছুটা ভালো হলে তাঁকে একটি অ্যাম্বুলেন্স জেটে (উড়োজাহাজ) করে ব্রাজিলে নেওয়া হয়। স্ত্রী ভ্যালেরিয়া চমস্কির জন্মভূমি ব্রাজিল। দেশটির সাও পাওলোর একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি।৯৫ বছর বয়সী চমস্কির মৃত্যুর গুঞ্জন সম্পর্কে তাঁর স্ত্রী ভ্যালেরিয়া বার্তা সংস্থা এএফপিকে ই-মেইলে বলেন, ‘এটা মিথ্যা। তিনি (চমস্কি) ভালো আছেন।’গত সপ্তাহে ব্রাজিলের সংবাদপত্র ফোলহা দে এস পাওলো চমস্কির শারীরিক অবস্থা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, চমস্কির কথা বলতে সমস্যা হচ্ছে। স্ট্রোকে তাঁর শরীরের ডান দিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। একজন নিউরোলজিস্ট, স্পিচ থেরাপিস্ট ও ফুসফুস–বিশেষজ্ঞের তত্ত্বাবধানে তাঁর চিকিৎসা চলছে। তিনি ধীরে ধীরে সেরে উঠছেন। পরে প্রতিবেদনটির সত্যতা নিশ্চিত করেন ভ্যালেরিয়া।বার্তা সংস্থা এপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বজুড়ে প্রতিবাদ ও স্বাধীনতার প্রতীক হিসেবে চমস্কি সমাদৃত। অধিকারকর্মী ও সমালোচক হিসেবে তিনি বেশ প্রভাবশালী। মধ্যপ্রাচ্য থেকে শুরু করে মধ্য আমেরিকার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রনীতি ও অনুগত গণমাধ্যমের বড় সমালোচক তিনি।বরেণ্য এই ভাষাবিদ যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজিতে দীর্ঘদিন পড়িয়েছেন। ২০১৭ সালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের টুকসনের অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক ও আচরণগত বিজ্ঞান কলেজে যোগ দেন। সেখানে তিনি বর্তমানে ভাষাবিজ্ঞানের ‘লরিয়েট প্রফেসর’ হিসেবে তালিকাভুক্ত। বিশ্বে তাঁর বই ও প্রবন্ধের অনেক পাঠক রয়েছেন। ১৯৫৭ সালে চমস্কির ‘সিনট্যাকটিক স্ট্রাকচার্স’ নামের বিখ্যাত বই বের হয়। বইটি ভাষাবিজ্ঞান অধ্যয়নকে বদলে দিয়েছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য