Tuesday, February 7, 2023
বাড়িবিশ্ব সংবাদতিন দিনে ১১ দফা ভোট, প্রতিনিধি পরিষদ এখনো স্পিকার-শূন্য

তিন দিনে ১১ দফা ভোট, প্রতিনিধি পরিষদ এখনো স্পিকার-শূন্য

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক ,৬জানুয়ারি:
টানা তিন দিনে মোট ১১ দফা ভোট হয়েছে। তারপরও যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদ স্পিকার নির্বাচন করতে পারেনি। খবর বিবিসির।স্পিকার নির্বাচনে ব্যর্থ হওয়ায় প্রতিনিধি পরিষদে অচলাবস্থা চলছে। প্রাক্-গৃহযুদ্ধ যুগের পর এমন দৃশ্য আর দেখেনি যুক্তরাষ্ট্র। প্রাক্-গৃহযুদ্ধের সময় প্রতিনিধি পরিষদে স্পিকার নির্বাচনে মোট ৪৪ দফা ভোট হয়েছিল।মঙ্গল, বুধের পর গতকাল বৃহস্পতিবার তৃতীয় দিনের মতো ভোট হয়। এদিনের ভোটেও প্রতিনিধি পরিষদের সংখ্যাগরিষ্ঠ রিপাবলিকান দলের নেতা কেভিন ম্যাকার্থি স্পিকার নির্বাচিত হতে ব্যর্থ হন।

স্পিকার নির্বাচনে ১১ দফার ভোটে কোনো ফল না আসার পর গতকাল কার্যক্রম মুলতবি করা হয়। আজ শুক্রবার আবার প্রতিনিধি পরিষদ বসবে। সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে স্পিকার নির্বাচিত না হওয়া পর্যন্ত ভোট চলবে।প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার হতে একজন প্রার্থীর ২১৮ ভোট দরকার। কিন্তু প্রতিনিধি পরিষদের সংখ্যাগরিষ্ঠ রিপাবলিকান দলের নেতা ম্যাকার্থিসহ কোনো প্রার্থী এই পরিমাণ ভোট পেতে এখন পর্যন্ত ব্যর্থ হয়েছেন। এ কারণে প্রতিনিধি পরিষদে স্পিকার নির্বাচনের ভোট চতুর্থ দিনে গড়াল।

ম্যাকার্থির স্পিকার নির্বাচিত হতে না পারার মূলে রয়েছেন তাঁর দলেরই কট্টরপন্থী কয়েক সদস্য। দলটিতে আছেন ২০ জন রিপাবলিকান সদস্য। তাঁদের কারণেই ম্যাকার্থি প্রয়োজনীয় ২১৮ ভোট পাচ্ছেন না।বিদ্রোহী এই রিপাবলিকানদের অধিকাংশই সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থক হিসেবে পরিচিত। ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলার পরও ম্যাকার্থি বিদ্রোহী রিপাবলিকানদের সমর্থন পাচ্ছেন না।বিদ্রোহী রিপাবলিকানরা ক্যালিফোর্নিয়ার কংগ্রেসম্যান ম্যাকার্থির রক্ষণশীলতার বিষয়ে সন্দিহান। বিদ্রোহী রিপাবলিকানদের একজন সাউথ ক্যারোলিনার রাল্ফ নরম্যান। নরম্যান বিবিসিকে বলেছেন, তিনি ম্যাকার্থিকে বিশ্বাসই করেন না।১১ দফা ভোটে হারের পর প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়াতে ম্যাকার্থির ওপর চাপ বাড়ছে। তাঁর বিকল্প হিসেবে ইতিমধ্যে কয়েকজন রিপাবলিকান কংগ্রেসম্যানের নাম আলোচনায় উঠে এসেছে।গত নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে মধ্যবর্তী নির্বাচন হয়। এই নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন জিতে প্রতিনিধি পরিষদের নিয়ন্ত্রণ পায় রিপাবলিকান পার্টি। কিন্তু প্রতিনিধি পরিষদে সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকা সত্ত্বেও দলীয় বিভক্তির কারণে রিপাবলিকানরা এখন পর্যন্ত স্পিকার নির্বাচিত করতে পারেননি। পর্যবেক্ষকেরা বলছেন, দলটিতে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা বিরোধ এখন স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য