Sunday, February 5, 2023
বাড়িবিশ্ব সংবাদ‘এল চাপোর’ ছেলেকে গ্রেপ্তারের পর মেক্সিকোয় প্রাণঘাতী দাঙ্গা

‘এল চাপোর’ ছেলেকে গ্রেপ্তারের পর মেক্সিকোয় প্রাণঘাতী দাঙ্গা

স্যন্দন ডিজিটেল ডেস্ক ,৬জানুয়ারি:

মেক্সিকোর কুখ্যাত কারাবন্দি মাদক সম্রাট ‘এল চাপো’র এক ছেলেকে গ্রেপ্তারের পর সিনালোয়া রাজ্যে দাঙ্গায় নিরাপত্তা বাহিনীর তিন সদস্য নিহত হয়েছেন।ছয় মাস ধরে নজরদারি অভিযান চালানোর পর বৃহস্পতিবার উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্যটির প্রধান শহর কুলিয়াকান থেকে ওভিদিও গুজম্যান লোপেজকে গ্রেপ্তার করা হয়, এর পরপরই সেখানে দাঙ্গা শুরু হয়।মাদক কারবারে লিপ্ত অপরাধী দলের ক্ষিপ্ত সদস্যরা রাস্তা অবরোধ করে গাড়িতে আগুন দেয় এবং স্থানীয় বিমানবন্দরে হামলা চালায় বলে জানিয়েছে বিবিসি।গুজম্যান লোপেজ (৩২) নিজেকে তার বাবার সাবেক অপরাধী চক্র ‘সিনালোয়া কার্টেলে’র নেতা বলে দাবি করতেন।বিমানবন্দরে হামলার সময় দু’টি উড়োজাহাজে গুলি লাগে, এর মধ্যে একটি উড্ডয়নের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ ঘটনার পর সিনালোয়ার তিনটি বিমানবন্দরের শতাধিক ফ্লাইট বাতিল হয়।এর আগে ১৮ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন রাজ্যটির গভর্নর।

কুলিয়াকানে দাঙ্গার ঢেউ শুরু হলে কর্তৃপক্ষ বিমানবন্দর ও স্কুল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।কেউ তথ্য দিয়ে গুজম্যান লোপেজকে গ্রেপ্তারে সহায়তা করলে তাকে ৫০ লাখ ডলার পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র।এক সংবাদ সম্মেলনে মেক্সিকোর প্রতিরক্ষামন্ত্রী লুয়িস ক্রেসেনসিও সান্দোভাল জানিয়েছেন, নিরাপত্তা বাহিনী সিনালোয়া কার্টেলের জ্যেষ্ঠ সদস্য গুজম্যান লোপেজকে গ্রেপ্তার করেছে এবং সে এখন রাজধানী মেক্সিকো সিটিতে আছে। ‘ইঁদুর’ নামে পরিচিত গুজম্যান লোপেজ তার বাবার কুখ্যাত সিনালোয়া কার্টেলের একটি উপদলের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন বলে জানান সান্দোভাল। এই সিনালোয়া কার্টেল বিশ্বের বৃহত্তম মাদক পাচারকারী দলগুলোর অন্যতম।  

লোপেজের বাবা ‘এল চাপো গুজম্যান’ মাদক ও অর্থ পাচারের দায়ে ২০১৯ সালে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে যাবজ্জীবন কারদণ্ড ভোগ করছেন। বাবার মতো লোপেজকেও যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেওয়া হবে কিনা তা পরিষ্কার হয়নি।সান্দোভাল জানান, লোপজকে গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে চালানো নজরদারি অভিযানে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা সহায়তা করেছেন।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসা ভিডিওতে কুলিয়াকানে রাতভর ব্যাপক বন্দুকযুদ্ধ হয়েছে বলে দেখা গেছে, হেলিকপ্টার থেকে গুলিবর্ষণের সময় আকাশ আলোকিত হয়ে উঠছিল; পড়ে থাকা অগ্নিদগ্ধ বাসগুলো রাস্তা অবরোধ করে আছে।

মেক্সিকোর অ্যারোমেক্সিকো এয়ারলাইন জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে তাদের একটি উড়োজাহাজ উড্ডয়নের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় গুলিবিদ্ধ হয়। উড়োজাহাজটির কুলিয়াকান থেকে মেক্সিকো সিটিতে যাওয়ার কথা ছিল।তবে এতে কোনো যাত্রী বা ক্রু জখম হয়নি বলে জানিয়েছে তারা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসা একটি ভিডিওতে যাত্রীদের উড়োজাহাজের মেঝেতে আশ্রয় নিতে দেখা গেছে। মেক্সিকোর বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থা জানিয়েছে, বিমান বাহিনীর একটি উড়োজাহাজেও গুলি লেগেছে।মেক্সিকোর নিরাপত্তা বাহিনীগুলো এর আগে ২০১৯ সালে গুজম্যান লোপেজকে গ্রেপ্তার করার পর তার সমর্থকদের সহিংসতার হুমকি এড়াতে তাকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছিল।বৃহস্পতিবার বিকালেও নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে অপরাধী চক্রের সদস্যদের গুলি বিনিময় অব্যাহত ছিল। নগরীর বিভিন্ন অংশে অবরোধ চলমান আছে এবং কর্তৃপক্ষ বাসিন্দাদের ঘরে থাকার নির্দেশ দিয়েছে। বহু দোকানপাট লুট হয়েছে।আগামী সপ্তাহে মেক্সিকোয় একটি শীর্ষ সম্মেলনে উত্তর আমেরিকার নেতাদের যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে। এই সম্মেলনে যোগ দিতে রোববার জো বাইডেন দেশটিতে যাবেন। 

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য