Monday, October 3, 2022
বাড়িরাজ্যসংক্রমিত আরো ৩৬৫, শীর্ষে পশ্চিম জেলা

সংক্রমিত আরো ৩৬৫, শীর্ষে পশ্চিম জেলা

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ২০ জুলাই : বিগত ২৪ ঘণ্টা গোটা দেশের করোনা সংক্রমণের পরিসংখ্যান চিকিৎসক মহলের উদ্বেগ বাড়ানোর পক্ষেই যথেষ্ট। বুধবার স্বাস্থ্য দপ্তরের দেওয়া বুলিটিনে ৩৩৬১ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে আরো ৩৬৫ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ পাওয়া গেছে। পশ্চিম জেলায় সংক্রমিত ১৮৬ জন, সিপাহীজেলা জেলায় সংক্রমিত ১৪ জন, খোয়াই জেলায় সংক্রমিত ১৭ জন, গোমতী জেলায় সংক্রমিত ৩৯ জন, দক্ষিণ জেলায় সংক্রমিত ৪৬ জন, ধলাই জেলায় সংক্রমিত ২৩ জন, ঊনকোটি জেলায় সংক্রমিত ১৩ জন, উত্তর জেলায় সংক্রমিত ২৭ জন, সংক্রমনের হার ১০.৮৬ শতাংশ। সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১,৯০৬ জন।

আর একদিন বাদে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২ হাজারের গন্ডি অতিক্রম করে ফেলবে বলে ধারণা। সুস্থতার হার ২৪ ঘন্টায় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৭.২০ শতাংশ। নতুন করে সুস্থ হয়েছে আরও ১৭১ জন। তবে পরিস্থিতি উদ্বেগ জনক বলে মনে করছে সচেতনমহল। এখন পর্যন্ত রাজ্যে গত তিন বছরে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৯২১ জনের। করোনা আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছে ১,০০,৩৭৪ জন। চলতি বছর সংক্রমণ দ্রুত বৃদ্ধি পেলেও মৃত্যুর সংখ্যা অনেকটাই কম। কিন্তু সংক্রমণ যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে মানুষের অসচেতনতা দায়ী বলে মনে করছে অভিজ্ঞমহল। কারণ সর্বত্রই মনে হয় যেন স্বাভাবিক। কেউ মাস্ক পরিধান করছে না। দৈহিক দূরত্ব বজায় রাখার নাম নেই। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নির্দেশিকা কঠোরভাবে গুরুত্ব দেওয়ার দিকে কোন নজর নেই। স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে গত ১১ সাংবাদিক সম্মেলন করে বলা হয়েছিল আগামী এক সপ্তাহ পরিস্থিতির দিকে নজর রাখা হবে। কিন্তু দেখা গেছে এক সপ্তাহ অতিক্রান্ত হয়ে গেছে। সংক্রমণ বুলেট গতিতে বাড়ছে। স্বাস্থ্য দপ্তর কোন উদ্যোগ গ্রহণ করছে না। এদিকে হাসপাতাল গুলিতে বাড়ছে সংক্রমিত রোগীর ভিড়। এ জি এম সি কোভিড কেয়ার সেন্টারে চিকিৎসাধীন রয়েছেন অনেক। পাশাপাশি রাজ্যের সব কটি জেলা হাসপাতালেও কোভিড রোগীর ভর্তি রেখে চিকিৎসা করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানা যায়।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য