Saturday, July 2, 2022
বাড়িরাজ্যরাজনৈতিক সন্ত্রাসের শিকার এক পরিবার

রাজনৈতিক সন্ত্রাসের শিকার এক পরিবার

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১৬ জুন : বুধবার সন্ধ্যায় তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করায় রাতে শাসক দলের দুর্বৃত্তরা আক্রমণ এক পরিবারের উপর বলে অভিযোগ। ঘটনা সুরমা বিধানসভার কচুছড়া থানাধীন এলাকায়। ঘটনায় গুরুতর আহত হয় চারজন। এর মধ্যে একজন শিশু রয়েছে। এদিন সুরমা বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত চানকাপ বাজার এলাকার ৭০ টি পরিবার ত্রিপুরা প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছিলেন।

এর মধ্যে একটি পরিবার ছিল আহত বল্লভ মালাকারের পরিবারটি। সেদিনের ঘটনায় আহতদের পরবর্তী সময় পুলিশ উদ্ধার করে নিয়ে যায় কুলাই হাসপাতালে। ঘটনার খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা। ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সুস্মিতা দেব জানান, বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হচ্ছে। ভারতীয় জনতা পার্টির দুর্বৃত্তরা এদিন তিন বছরের শিশু পুত্রকে পর্যন্ত ছাড়েনি। অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। পুলিশ আধিকারিকেরা সঠিকভাবে দায়িত্ব নেয় নি এদিনের ঘটনায় বলে অভিযোগ। সুস্মিতা দেব বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী ডাঃ মানিক সাহার বিরুদ্ধে আঙ্গুল তুলে বলেন, তিনি মুখ্যমন্ত্রী পদে আসীন হয়ে বলেছিলেন আইন-শৃংখলার দিকে বিশেষ নজর রাখবেন। কিন্তু বিজেপি ব্যর্থ হয়ে এ ধরনের সন্ত্রাস জারি রেখেছে।

 বিপ্লব দেব যে রাস্তায় হাঁটছিলেন সে রাস্তায় হাঁটছেন মানিক সাহা। কোন পরিবর্তন হয়নি আইনশৃঙ্খলার। তাই এর তীব্র প্রতিবাদ জানান সুস্মিতা দেব। এর বিরুদ্ধে আগামী দিনে আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করার দাবি জানান তিনি। এদিনের আক্রমণের ঘটনায় অন্যান্য নেতৃত্বরা নিন্দা জানান। সরাসরি আঙ্গুল তুলে ভারতীয় জনতা পার্টির দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে। রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এটি অত্যন্ত নারকীয় ঘটনা। গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে মানুষের অধিকার নেই। এভাবে নিশংস আক্রমণ রাজ্যের মানুষ ভালো ভাবে মেনে নিচ্ছে না। যেদিন থেকে ভারতীয় জনতা পার্টি ত্রিপুরা রাজ্যে এসেছে সেদিন থেকে তারা এ ধরনের হিংসার রাজনীতি পরে চলছে বলে জানান ত্রিপুরা দায়িত্বপ্রাপ্ত তৃণমূল কংগ্রেস নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। আহতরা বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বৃহস্পতিবার হাসপাতালে আহতদের দেখতে চান তৃণমূল কংগ্রেসের সংসদ সুস্মিতা দেব, প্রদেশ সভাপতি সুবল ভূমিক সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য