Monday, May 16, 2022
বাড়িরাজ্যউন্নত চিকিৎসা পরিষেবা এখন রাজ্যে সম্ভব : মুখ্যমন্ত্রী

উন্নত চিকিৎসা পরিষেবা এখন রাজ্যে সম্ভব : মুখ্যমন্ত্রী

স্যন্দন ডিজিটাল ডেস্ক। আগরতলা। ১১ মে : আজ ত্রিপুরা এক নতুন দিশা চলছে। বর্তমানে ত্রিপুরাতেই অধিকাংশ উন্নত চিকিৎসা করা সম্ভব হচ্ছে। ফলে বহিঃরাজ্যে রোগী রেফারের প্রবনতা অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে। বুধবার বিবেকানন্দ বিচার মঞ্চ এবং নার্সিং স্টাফ আই. জি. এম হাসপাতালের যৌথ ব্যবস্থাপনায় জাতীয় সেবিকা সপ্তাহ ২০২২ উপলক্ষে আই জি এম হাসপাতালের মিলনায়তনে রক্তদান শিবিরের বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।

তিনি বলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য এখন আর বহিঃরাজ্যে যেতে হয় না। স্বাস্থ্যব্যবস্থা জেলা এবং মহকুমা হাসপাতাল গুলোতে আগের তুলনায় অনেকটাই উন্নত হয়েছে। জটিল অস্ত্রোপচার জিবি হাসপাতালে করা সম্ভব হচ্ছে। বাণিজ্যিক দৃষ্টিকোণ থেকে বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালের রাজ্যে বিজ্ঞাপনের প্রবণতাও হ্রাস পেয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। ত্রিপুরার সমস্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীরাই নিজ নিজ ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠ। কারণ রাজ্যের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে সংযোজিত প্রতিটি সাফল্যের পালকের অন্যতম কৃতিত্ব রয়েছে তাঁদের বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। আরো বলেন, রাজ্য সরকারি হাসপাতালগুলিতে রোগীর চাপ অতিরিক্ত থাকে। তারপরেও রোগীর পরিজন ও স্বাস্থ্য কর্মীদের পরিস্থিগত পারস্পরিক আন্তরিকতা ও বোঝাপড়ার মাধ্যমে উন্নত স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদান করতে হবে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের। মহিলা এবং পুরুষ উভয় নার্সদের রোগীদের প্রতি মাতৃ সুলভ ব্যবহার করতে হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী। আগামী দিনে ত্রিপুরার নার্স দেশের মধ্যে শ্রেষ্ঠ হতে হবে। যাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মন কি বাত -এর মধ্য দিয়ে ত্রিপুরার নার্সদের পারদর্শীতার প্রশংসা করেন জানান মুখ্যমন্ত্রী।

 কোন এক সময় রাজ্যে নারীদের ছোট মানসিকতায় দেখা হতো। তাই বর্তমান সরকার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর সবচেয়ে বেশি মহিলাদের সশক্তিকরণ এর দিকে গুরুত্ব দিয়ে চলেছে। সরকারি চাকরির মহিলাদের জন্য ক্ষেত্রে ৩৩ শতাংশ সংরক্ষণ ব্যবস্থা আনা হয়েছে। যাতে মহিলারা নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে। তাহলে সমাজ এগিয়ে যাবে বলে আশা ব্যক্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন অনুষ্ঠান শুরুর আগে স্বামী বিবেকানন্দ এবং নার্সের প্রতিষ্ঠাতা হলেন ফ্লোরেন্স নাইটেঙ্গেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আইজিএম হাসপাতালে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান ডাঃ দিলীপ দাস, ত্রিপুরা খাদি বোর্ডের চেয়ারম্যান রাজীব ভট্টাচার্য, স্বাস্থ্য দপ্তরের অধিকর্তা জে কে সিনহা সহ অন্যান্যরা। অনুষ্ঠানের শেষে মুখ্যমন্ত্রীর সহ অন্যান্য অতিথিরা রক্তদান শিবির পরিদর্শন করে রক্তদাতাদের উৎসাহিত করেন।

সম্পরকিত প্রবন্ধ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সবচেয়ে জনপ্রিয়

সাম্প্রতিক মন্তব্য